গাড়ির দূষণ কমাতে দিল্লিতে প্রথম ‘ভারত স্টেজ ৬’ (বিএস৬) মাপকাঠির তেল বিক্রি শুরু হল। সোমবার সেই অনুষ্ঠানে তেল মন্ত্রী ধর্মেন্দ্র প্রধান সংস্থাগুলিকে এই তেলে উপযোগী গাড়ির তৈরির আর্জি জানালেন। গাড়ি শিল্প মহল এখনই প্রধানের আর্জির বাস্তবতা নিয়ে প্রশ্ন তুলছে।

প্রধান এ দিন বলেন, ‘‘সংস্থাগুলি এখন বিএস-৬ ইঞ্জিনের গাড়ি তৈরি করে রফতানি করে। ফলে দেশের বাজারেও সেই গাড়ি তৈরি করতে খুব একটা সমস্যা হবে না। সেখানে উপস্থিত সেন্টার ফর সায়েন্স অ্যান্ড এনভায়রনমেন্ট-এর ডিরেক্টর সুনীতা নারায়ণও জানান, ওই মাপকাঠির গাড়ি তৈরি না হলে এই তেল জোগানের পুরো সুফল মিলবে না।

বিএস-৬ মাপকাঠির তেল মিললে দূষণ কমবে, তা মানছে গাড়ি শিল্প। কিন্তু এক কর্তা বলেন, ‘‘এই গাড়ি নিয়ে দিল্লির বাইরে গিয়ে তেলে টান পড়লেই তো বিপত্তি হবে। সেখানে তো এই তেল মিলবে না। তখন সেই গাড়িতে বিএস-৪ মাপকাঠির তেল ভরলে গাড়িই নষ্ট হয়ে যাবে।’’

তাই অন্যান্যা বাজারেও এই তেলের জোগান নিশ্চিত করা জরুরি।’’ তিনি জানান, বিএস-৪ ইঞ্জিনের গাড়িতে বিএস-৬ তেল ভরা যায়। কিন্তু উল্টোটা করা যায় না। তাঁর আরও অভিযোগ, তেল সংস্থাগুলিই ঠিক সময়ে এই তেলের জোগান দিতে পারেনি। তবে গাড়ি সংস্থাগুলি ২০২০ সালে গোটা দেশে এই তেল ব্যবহারের লক্ষ্যমাত্রা পূরণের জন্য কাজ করে চলেছে।