কে জি বেসিনে গ্যাস উত্তোলন বিতর্কে সম্প্রতি কেন্দ্রের বিরুদ্ধে রায় দিয়েছে আন্তর্জাতিক সালিশি আদালত। নির্দেশ দিয়েছে রিলায়্যান্স ইন্ডাস্ট্রিজ়কে (আরআইএল) মামলার খরচ বাবদ প্রায় ৫৬ কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ মেটানোর। শুক্রবার তেলমন্ত্রী ধর্মেন্দ্র প্রধানের দাবি, এই রায়ের বিরুদ্ধে হাইকোর্টে যাবেন তাঁরা। তবে মুকেশ অম্বানীর সংস্থার বিরুদ্ধে কেন্দ্রের এই ‘যুদ্ধং দেহি’ মনোভাব নিয়েও দানা বেঁধেছে জল্পনা। অনেকের প্রশ্ন, হাইকোর্টে যাওয়া কেন্দ্রের দেখনদারি নয় তো? না কি সত্যিই হারের বিরুদ্ধে লড়ে যাওয়ার সদিচ্ছা রয়েছে তাদের?

কেজি-ডি৬ থেকে গ্যাস তোলে রিলায়্যান্স-বিপির জোট। কেন্দ্রের অভিযোগ, পাশের ওএনজিসির কেজি-ডি৫ ক্ষেত্রের গ্যাসও বেআইনি ভাবে তুলেছে তারা। এ জন্য ১৫৫ কোটি ডলার ক্ষতিপূরণের দাবি জানায় তেল মন্ত্রক। সেই দাবিই খারিজ করেছে সালিশি আদালত। তাদের যুক্তি, পাশের ক্ষেত্রের গ্যাস চলে এলে, চুক্তি অনুযায়ী তা তুলে বেচার অধিকার রিলায়্যান্সের আছে। এতে কেন্দ্রের সায়ও জরুরি নয়।

সেই প্রসঙ্গে এ দিন প্রধানের যুক্তি, প্রাক্তন বিচারপতি এ পি শাহ কমিটির সুপারিশ মেনেই ক্ষতিপূরণের দাবি জানিয়েছিলেন তাঁরা। যা আসলে পাশের ক্ষেত্রে চলে যাওয়া গ্যাসের মুনাফার ভাগ। সেই অবস্থানে এখনও সরকার অনড় বলেই তাঁর দাবি।