ইরানের উপরে সম্প্রতি ফের নিষেধাজ্ঞা জারি করলেও সেখান থেকে অশোধিত তেল কিনতে নভেম্বরে ভারতকে ছ’মাসের ছাড় দিয়েছিল আমেরিকা। সেই মেয়াদ ফুরোনোর দিন যত এগিয়ে আসছে, ততই চেপে বসছে প্রশ্ন, এর পরে কী হবে? ইরানের বিদেশ মন্ত্রী মহম্মদ জাভেদ জারিফের আশা, ওয়াশিংটনের কাছে ছাড়ের মেয়াদ বাড়াতে আর্জি জানাবে ভারত। চেষ্টা সফল হবে বলেও বিশ্বাস তাঁর।

তবে মঙ্গলবার নয়াদিল্লিতে এক সম্মেলনে জারিফ শুধু তাঁদের তেলের দ্বিতীয় বৃহত্তম ক্রেতা ভারতের গুণগান করেননি, সেই সঙ্গে একহাত নিয়েছেন আমেরিকাকে। ইরানের উপর মার্কিন নিষেধাজ্ঞাকে বেআইনি তকমা দিয়ে বলেছেন, আর্থিক ভাবে এগিয়ে থাকার শক্তিকে অন্যায্য পথে ব্যবহার করছে ওয়াশিংটন। তাঁর দাবি, ‘‘চ্যালেঞ্জ পেরনো যাবে। পথ ঠিক বেরোবে। ৪০ বছরের নিষেধাজ্ঞা সত্ত্বেও একটা দেশ শুধু টিকেই নেই, উন্নতিও করেছে।’’ 

তবে ইরান থেকে ভারতের তেল কেনা বহাল থাকা নিয়ে আশাবাদী জারিফ। আশাবাদী দু’দেশের সম্পর্ক নিয়েও। তাঁর বার্তা, ‘‘খারাপ সময়ে ভারত পাশে থেকেছে ইরানের। ভাল সময়ে এলে এ দেশের মানুষকে ভুলবে না ইরানও।’’