• জয়দীপ সুর
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

বাজারে আসছে মার্সিডিজ বেঞ্জের চোখধাঁধানো নতুন সি-ক্লাসের গাড়ি

mercedes
তীব্র গতির পাশাপাশি যথেষ্ট আরামদায়ক এই গাড়ি।

বিশ্ববিখ্যাত জার্মান গাড়ি প্রস্তুতকারক সংস্থা মার্সিডিজ বেঞ্জের সি-ক্লাসের নতুন মডেলের গাড়ি প্রকাশ পেতে চলেছে ভারতে। সি ক্লাসের পঞ্চম প্রজন্ম হল এই নতুন তিনটি গাড়ি— সি২২০ প্রাইম, সি২২০ প্রগ্রেসিভ, সি৩০০ ডি এএমজি লাইন।

এই  তিনটি গাড়ি প্রকাশ করে মাইকেল জপ (ভাইস প্রেসিডেন্ট, সেলস অ্যান্ড মার্কেটিং, মার্সেডিস-বেঞ্জ ইন্ডিয়া) জানান, নতুন গাড়িগুলিতে রয়েছে বিএস-৪ ইঞ্জিন, সব ডিজেল ইঞ্জিন। সি২২০ মডেলগুলিতে ২ লিটারের ক্ষমতাশালী ইঞ্জিন রয়েছে যাতে ০ থেকে ১০০ কিমি প্রতি ঘন্টা স্পিড তুলতে সময় লাগবে কেবল ৬.৯ সেকেন্ড । দামী  সি ৩০০ডি গাড়িতে রয়েছে সি সসিরিজের সব থেকে ক্ষমতাশালী ২ লিটারের ইঞ্জিন, যাতে ঘণ্টায় ০ থেকে ১০০ কিমি স্পিড তুলতে কেবলমাত্র ৫.৯ সেকেন্ড সময় লাগে।

কোম্পানির তরফে জানানো হয়েছে আগের তুলনায় নতুন সিরিজের গাড়িতে প্রায় ৬৫০০টি বদল করা হয়েছে। রয়েছে ১০ ইঞ্চির বিশাল স্ক্রিন, ফোনের সঙ্গে আরও ভাল সংযোগ ব্যবস্থা। এএমজি ব্র্যান্ড সি৩০০-কে আরও বেশি রেসিং গাড়ির সঙ্গে তুলনায় নিয়ে এসেছে। আগের থেকেও অনেকটা পরিবর্তন ঘটেছে ‘সি’ সিরিজের এই গাড়িতে। সামনের গ্রিলের ডিজাইন এ-সিরিজের থেকে অনুপ্রাণিত। রয়েছে এলইডি হেডলাইট, এলইডি টেলল্যাম্প, অ্যালয় হুইলের মতো নজরকাড়া ডিজাইন।

আরও পড়ুন: ২৫ মাসে ২৫ কোটিরও বেশি গ্রাহক! তাক লাগাল মুকেশের রিলায়্যান্স জিও​

আরও পড়ুন: আপনার মাইনের কতগুণ এঁরা শুধু নিরাপত্তার জন্য খরচ করে জানেন?​

কোম্পানির তরফে এই গাড়ি নিয়ে অনেক উচ্চাশা রয়েছে। তাদের মতে, কোম্পানির ইতিহাসে এই প্রথম একটা প্রজন্ম থেকে পরের প্রজন্মের গাড়িতে এত পরিবর্তন করা হল। সেডান থেকে স্পোর্ট গাড়ির দিকে নিয়ে যাওয়া হয়েছে এই গাড়িকে। তবে, গতিকে প্রাধান্য দিতে গিয়ে আরাম উপেক্ষা করা হয়নি। আগের মতোই আরামদায়ক এই গাড়ি চালক থেকে যাত্রী, সবার কথা মাথায় রেখেই বানানো। কোম্পানির আশা, এই সব পরিবর্তনের ফলে ‘সি’ ক্লাসের নতুন গাড়ি ক্রেতাদের যেমন পছন্দ হবে, তেমনই কোম্পানির কাছেও লাভজনক হবে।

রিপোর্ট অনুযায়ী, মার্সিডিজ বেঞ্জের সব থেকে বেশি বিক্রি হওয়া লাক্সারি সিডান হল এই ‘সি’ ক্লাস। প্রায় ৩০,৫০০-র বেশি গাড়ি বিক্রি হয়েছে শুধু ভারতেই। সি২২০ প্রাইম-এর দাম ৪০ লক্ষ, সি২২০ প্রগ্রেসিভ-এর দাম ৪৪.২৫ লক্ষ আর সব থেকে দামী ও শক্তিশালী মডেল হল সি৩০০ ডি এএমজি লাইন, ৪৮.৫০ লক্ষ টাকা দাম। আশা করা হচ্ছে, ভারতের বাজারে সি সিরিজের সঙ্গে টক্কর হবে অওডি এ৪, জাগুয়ার এক্স ই, বিএমডব্লু ৩ সিরিজ। দেখা যাক, কোম্পানির আশা পূর্ণ করতে পারে কি না এই নতুন ‘সি’ সিরিজ।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন