চালু করা হয়েছিল কিছুটা পরীক্ষামূলক ভাবে। কিন্তু ‘অসাধারণ সাফল্য’ দেখে সেই জনধন প্রকল্পকে অনির্দিষ্ট কাল চালিয়ে যাওয়ার কথা জানিয়ে দিল কেন্দ্র। একই সঙ্গে, ভোটের মুখে তাকে আরও আকর্ষণীয় করতে ঘোষণা করা হল সেখানে ওভারড্রাফ্‌টের সুবিধা এক লাফে দ্বিগুণ করার কথাও।

বুধবার কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভার বৈঠক শেষে অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি বলেন, প্রধানমন্ত্রী জনধন প্রকল্পে বিপুল সাড়া মিলেছে। তাই এ বার ওই প্রকল্প চালিয়ে যাওয়া হবে অনির্দিষ্ট কালের জন্য। এখন সেখানে ৫,০০০ টাকা ওভারড্রাফ্‌টের সুবিধা মেলে। তা বাড়িয়ে দ্বিগুণ করার (১০,০০০ টাকা) সিদ্ধান্ত নিয়েছে কেন্দ্র।

এনডিএ সরকারের সাড়ে চার বছরের জমানায় জনধন প্রকল্পকে অন্যতম সাফল্য হিসেবে বারবার তুলে ধরেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। অজস্র বার বলেছেন সেখানে গরিব মানুষের অ্যাকাউন্ট খোলার কথা। দাবি করেছেন, প্রত্যন্ত প্রান্তেও সকলের দরজায় ব্যাঙ্কিং পরিষেবা পৌঁছে দেওয়ার জন্য এই প্রকল্প অন্যতম হাতিয়ার। এ দিন টুইটে তাঁর ইঙ্গিত, পরিবারের এক জন নয়, প্রত্যেক প্রাপ্তবয়স্কই খুলতে পারবেন জনধন অ্যাকাউন্ট। অর্থাৎ, প্রকল্পের সুবিধার দরজা আরও হাট হবে।

এ দিন জেটলির দাবি, ৩২.৪১ কোটি জনধন অ্যাকাউন্ট খুলেছে দেশে। সেখানে জমা পড়েছে ৮১,২০০ কোটি টাকা। অ্যাকাউন্টধারীদের ৫৩ শতাংশই আবার মহিলা।

তাতে অবশ্য সমস্ত প্রশ্নের উত্তর মেলেনি। কত জনধন অ্যাকাউন্টে টাকা জমা পড়ে না, গড় লেনদেনের অঙ্ক কত— এই সমস্ত প্রশ্নের উত্তর এখনও স্পষ্ট নয়। খোলসা হয়নি নোটবন্দির সময়ে টাকা সাদা করতে বেশ কিছু জনধন অ্যাকাউন্ট ব্যবহারের অভিযোগটিও।