• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

পরপর তিনটি দুর্ঘটনা, আহত ৪

accident
বিধাননগর কমিশনারেটের অফিস। —ফাইল চিত্র।

বিধাননগর কমিশনারেট এলাকায় বুধবার সকালে পর পর তিনটি দুর্ঘটনা ঘটে। ঘটনায় এক মহিলা-সহ চার ব্যক্তি আহত হয়েছেন। যদিও রাত পর্যন্ত থানায় কোনও অভিযোগ জমা পড়েনি।

পুলিশ জানায়, সকাল ৭টা ১০ মিনিট নাগাদ নিকো পার্কের কাছে পথ দুর্ঘটনায় আহত হন এক মহিলা-সহ দুই ব্যক্তি। পুলিশ জানায়, একটি গাড়ি বাইপাস থেকে নিউ টাউনের দিকে যাচ্ছিল। নিকো পার্ক পেরিয়ে তিন মাথার মোড়ের কাছে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে মেট্রোর পিলারের ডিভাইডারে ধাক্কা মারেন গাড়ির চালক। গাড়িটি উল্টে যায়। গাড়িতে নিকিতা ধানুকা এবং বিজয় পাণ্ডা নামে দুই ব্যক্তি ছিলেন। তবে গাড়ি কে চালাচ্ছিলেন তা স্পষ্ট নয়। আহতদের প্রথমে বিধাননগর মহকুমা হাসপাতালে এবং পরে এনআরএস হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।

এ দিনই সকাল ১০টার কিছু পরে মহিষবাথান এলাকায় বাসের ধাক্কায় গুরুতর আহত হন পিয়ার আলি মণ্ডল নামে এক সাইকেল চালক। পুলিশ জানায়, তাঁর বাড়ি ঢালিপাড়ায়। স্থানীয় বাসিন্দাদের অভিযোগ, নিউ টাউনের দিক থেকে দু’টি বাস রেষারেষি করে সল্টলেকের দিকে যাচ্ছিল। তখন রাজারহাট এক্সপ্রেসওয়ে ধরে সাইকেলে যাচ্ছিলেন পিয়ার। একটি বাস পিছন থেকে সাইকেলে ধাক্কা মারলে রাস্তায় ছিটকে পড়ে মাথা ফেটে যায় পিয়ারের। বাসটিকে ধরা না গেলেও এলাকায় সাময়িক উত্তেজনা ছড়ায়। পিয়ারকে বিধাননগর মহকুমা হাসপাতালে এবং সেখান থেকে এনআরএসে নিয়ে যাওয়া হয়।

পুলিশ জানিয়েছে, সল্টলেকের পাঁচ নম্বর সেক্টরে বুধবার সকাল ১১টা নাগাদ পথ দুর্ঘটনায় আহত হন এক মোটরবাইক চালক। নাম, জনক মণ্ডল। বাড়ি মহিষবাথানে। পুলিশ সূত্রের খবর, কলেজ মোড় থেকে বাঁ দিকে ওয়েবল টেকনোপলিসের দিকে যাওয়ার সময়ে রাস্তায় দাঁড়িয়ে থাকা শাট্ল গাড়ির পিছনে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ধাক্কা মারেন ওই বাইক চালক। গুরুতর জখম অবস্থায় তাঁকে প্রথমে বিধাননগর মহকুমা হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে প্রাথমিক চিকিত্সার পরে তাঁকে এনআরএসে হাসপাতালে পাঠানো হয়।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন