• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

জামিন পেলেন বিক্রম চট্টোপাধ্যায়

Vikram-Chatterjee
আলিপুর জেলা জজ আদালত থেকে জামিন পেলেন বিক্রম চট্টোপাধ্যায়। —নিজস্ব চিত্র।

৭০ দিনের মাথায় গ্রেফতার। ২০ দিনের মাথায় জামিন। আলিপুর আদালত থেকে বুধবার জামিন পেলেন অভিনেতা বিক্রম চট্টোপাধ্যায়। ১৯ দিন জেলজীবনের পর আদালত থেকে শর্তাধীন জামিনে মুক্তি পেলেন বিক্রম। মডেল সোনিকা সিংহ চৌধুরীর অস্বাভাবিক মৃত্যুতে অনিচ্ছাকৃত খুনের মামলায় মূল অভিযুক্ত অভিনেতা বিক্রম চট্টোপাধ্যায়। বৃহস্পতিবার বাড়ি ফিরতে পারেন অভিনেতা।

এদিন দুপুর সাড়ে বারোটা নাগাদ আলিপুর জেলা জজ আদালতে সোনিকা মৃত্যু মামলার শুনানি শুরু হয়। ছেলের শুনানির সময় এজলাসে হাজির ছিলেন বিক্রমের বাবা বিজয় চট্টোপাধ্যায়। প্রায় এক ঘণ্টা সওয়াল-জবাবের পর আলিপুর জেলা জজ আদালতের ভারপ্রাপ্ত বিচারক সুজয় সেনগুপ্ত বেশ কয়েকটি শর্তে জামিন মঞ্জুর করেন বিক্রমের। জামিনে ২৫ হাজার টাকা করে দু’টি ব্যক্তিগত বন্ড, পাসপোর্ট আদালতের কাছে জমা রাখা, পুলিশের অনুমতি ছাড়া কলকাতা না ছাড়তে পারার শর্ত রয়েছে। তবে বিক্রম চট্টোপাধ্যায় যেহেতু এক জন অভিনেতা, তাই কাজের প্রয়োজনে তাঁকে কলকাতা বা দেশের বাইরে যেতে হতে পারে বলে সওয়াল করেন বিক্রমের আইনজীবীরা। সেক্ষেত্রে টালিগঞ্জ থানা থেকে বিশেষ অনুমতি নিয়েই বিক্রমকে বাইরে যেতে হবে বলে নির্দেশ দিয়েছেন বিচারক। এছাড়া প্রতি শুনানির দিনই অভিযুক্ত বিক্রমকে আদালতে হাজিরা দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

আরও পড়ুন, তথ্য অস্পষ্ট, বিক্রমদের অভিযোগে চার্জশিট বদল

এদিন জামিন পাওয়ার পর বিক্রমের বাবা বিজয় চট্টোপাধ্যায় বলেন, ‘‘অকারণে ছেলেটাকে জেলে থাকতে হল। সোনিকার মৃত্যুতে আমরা সবাই ওঁর পরিবারকে সহানুভূতি জানাচ্ছি।’’

২৯ এপ্রিল ভোর রাতে রাসবিহারী মোড়ের কাছে বিক্রমের গাড়ি দুর্ঘটনার কবলে পড়ে। দুর্ঘটনায় মৃত্যু হয় বিক্রমের সঙ্গে থাকা মডেল ও অভিনেত্রী সনিকা সিংহ চৌহানের। জখম হন বিক্রমও। এই ঘটনায় প্রথমে গাফিলতির জেরে মৃত্যু, বেপরোয়া গাড়ি চালানো ও সম্পত্তি নষ্টের ধারায় বিক্রমের বিরুদ্ধে ৩০৪-(এ) ধারায় মামলা রুজু হয়। দুর্ঘটনার পাঁচ দিন পর আলিপুর আদালতে আত্মসমর্পণ করে জামিন পান তিনি। কিন্তু এর পর বিভিন্ন তথ্যপ্রমাণ খতিয়ে দেখে ৩০ মে অভিনেতার বিরুদ্ধে অনিচ্ছাকৃত খুন অর্থাৎ ৩০৪ ধারা যুক্ত হয়। কলকাতা হাই কোর্টে বিচারপতি দীপঙ্কর দত্তের ডিভিশন বেঞ্চে বিক্রমের আগাম জামিনের আবেদনের শুনানির আগেই ৬ জুলাই রাতে অ্যাক্রোপলিস মলের সামনে থেকে গ্রেফতার করা হয় তাঁকে।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন