• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

দু’দিনের ধর্মঘটে অ্যাপ-ক্যাব চালকেরা, আশঙ্কা ভোগান্তির

Cab
—প্রতীকী ছবি।

Advertisement

অ্যাপ-ক্যাব ধর্মঘট হলে আগামী সোমবার ভোর থেকে বুধবার ভোর পর্যন্ত টানা ৪৮ ঘণ্টা দুর্ভোগে পড়তে পারেন শহরের যাত্রীরা। চালকদের প্রাপ্য বাড়ানোর দাবিতে অ্যাপ-ক্যাব পরিষেবা বন্ধ রাখার ডাক দিয়েছে ‘ওয়েস্ট বেঙ্গল অনলাইন ক্যাব অপারেটর্স গিল্ড’।

শুক্রবার তৃণমূলের শ্রমিক সংগঠন আইএনটিটিইউসি অনুমোদিত অ্যাপ-ক্যাব চালকদের ওই সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক ইন্দ্রনীল বন্দ্যোপাধ্যায় এ খবর জানান। তাঁর অভিযোগ, অ্যাপ-ক্যাব সংস্থাগুলির হয়ে চালকেরা সারা দিন গাড়ি চালালেও প্রাপ্য ঠিকমতো পাচ্ছেন না। অ্যাপ-ক্যাব সংস্থাগুলির কাছে বারবার অভিযোগ জানিয়েও কোনও ফল হয়নি। বহু চালক ব্যাঙ্কের ঋণ শোধ করতে গিয়ে সমস্যায় পড়ছেন। সম্প্রতি ঋণের টাকা মেটাতে না পেরে এক অ্যাপ-ক্যাব চালক আত্মহত্যা করেছেন বলেও তাঁর অভিযোগ।

চালকদের প্রাপ্য বাড়ানোর দাবিতে ওই সংগঠনের তরফে ২৪ জুন পরিবহণমন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারীকেও চিঠি দেওয়া হয়। তাতেও সাড়া না মেলায় এ দিন সংগঠনের তরফে পরিষেবা বন্ধ রাখার ডাক দেওয়া হচ্ছে বলে জানান ইন্দ্রনীল।

তাঁর অভিযোগ, অ্যাপ-ক্যাব সংস্থাগুলি যাত্রীদের থেকে চড়া হারে ভাড়া আদায় করলেও চালকেরা প্রাপ্য থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন। পরিষেবা শুরুর সময়ে সংস্থার পক্ষ থেকে চালকদের যে হারে আয়ের প্রতিশ্রুতি দেওয়া হয়েছিল, তার তুলনায় আয় অনেক কমেছে। পাশাপাশি, বিভিন্ন সময়ে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা হিসেবে চালকদের আইডি ব্লক করে তাঁদের বিপাকে ফেলা হচ্ছে বলেও তাঁর অভিযোগ। এ দিন তিনি বলেন, ‘‘যাত্রীদের অসুবিধা হবে জেনেও নিরুপায়। পরিষেবা বন্ধ রাখা ছাড়া উপায় নেই।’’

এর মধ্যে ২ জুলাই এআইটিইউসি অনুমোদিত ট্যাক্সি সংগঠনের ডাকে ‘পুলিশি নির্যাতনের’ প্রতিবাদে লালবাজার অভিযানের ডাক দেওয়া হয়েছে। ওই দিন সাধারণ ট্যাক্সি বন্ধ রাখার ঘোষণাও হয়েছে। অ্যাপ-ক্যাব ও ট্যাক্সি বন্ধ থাকলে যাত্রীদের বড় অংশ সমস্যায় পড়তে পারেন।

এ প্রসঙ্গে শুভেন্দুকে ফোন এবং মেসেজ করা সত্ত্বেও তিনি কোনও উত্তর দেননি।

সবাই যা পড়ছেন

Advertisement

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন