কংগ্রেস সাংসদ শশী তারুরের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করল কলকাতা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট কোর্ট (ব্যাঙ্কশাল কোর্ট)। বিজেপির নেতৃত্বে ভারত ‘হিন্দু পাকিস্তান’ হওয়ার দিকে এগোচ্ছে বলে গত বছর মন্তব্য করেছিলেন তারুর। সেই নিয়ে দায়ের হওয়া একটি মামলার ভিত্তিতেই মঙ্গলবার তাঁর বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করে আদালত।

গত বছর জুলাইয়ে তিরুঅনন্তপুরমে একটি অনুষ্ঠানে বিজেপির বিরুদ্ধে ধর্মীয় মেরুকরণের অভিযোগ তুলেছিলেন শশী তারুর। তিনি বলেছিলেন, ‘‘২০১৯ লোকসভা ভোটেও বিজেপি জিতে গেলে, দেশে গণতন্ত্রের অস্তিত্ব থাকবে না। আমরা যে সংবিধান মেনে চলি, তা ছিঁড়ে কুটি কুটি করে ফেলবে। তার পর নিজেদের মর্জিমতো নিয়ম চালু করতে তৈরি করবে নয়া সংবিধান।’’

তিনি বলেন, ‘‘বিজেপির সংবিধানে হিন্দু রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠাতেই জোর দেওয়া হবে। কেড়ে নেওয়া হবে সংখ্যালঘুদের সমানাধিকার। দেশটাকে হিন্দু পাকিস্তানে পরিণত করবে ওরা। মহাত্মা গাঁধী, জওহরলাল নেহরু, সর্দার পটেল, মৌলানা আজাদের মতো মহান নেতারা কিন্তু এর জন্য সংগ্রাম করেননি।’’

আরও পড়ুন: কোনও পুজো কমিটিকে নোটিস পাঠানো হয়নি, মমতার অভিযোগ উড়িয়ে জানাল আয়কর দফতর​

আরও পড়ুন: অসমে বাতিল নাগরিকদের তালিকা আর যাচাই নয়, এনআরসি মামলায় জানিয়ে দিল সুপ্রিম কোর্ট​

সেই সময়েই শশী তারুরের এই মন্তব্যের তীব্র প্রতিবাদ করেছিল বিজেপি। আদালতের দ্বারস্থ হয়েছিলেন কলকাতার আইনজীবী সুমিত চৌধুরী। এত দিন পর সেই মামলাতেই তারুরের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করল আদালত।