• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

শিক্ষিকাকে নেট-নিগ্রহে নিন্দা প্রস্তাব বেথুনের

bethune
ছবি: সংগৃহীত।

যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাসের শিক্ষিকা মেরুনা মুর্মুকে নেট-নিগ্রহের অভিযোগ উঠেছে বেথুন কলেজের এক ছাত্রীর বিরুদ্ধে। এই ঘটনায় নিন্দা প্রস্তাব নিল বেথুন কলেজ। অধ্যক্ষা কৃষ্ণা রায় রবিবার জানিয়েছেন, গোটা কলেজ ওই শিক্ষিকার পাশে আছে। এমন ঘটনা যাতে ভবিষ্যতে না ঘটে, সে কারণে সচেতনতা তৈরির জন্য বেশ কিছু ওয়েবিনার করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তাঁরা। দিন কয়েক আগে সোশ্যাল মিডিয়ায় জাত তুলে ওই শিক্ষিকাকে অপমান এবং পরে ফেসবুকে সংগঠিত নেট-নিগ্রহের অভিযোগ ওঠে। এতে মূল অভিযুক্ত বেথুন কলেজের বাংলা তৃতীয় বর্ষের এক ছাত্রী। ঘটনার পরে বাংলা বিভাগের প্রধান ওই ছাত্রীর আচরণের নিন্দা করে ফেসবুকে লেখেন। সেখানেও ওই ছাত্রী এবং আরও কয়েক জন অপমানজনক মন্তব্য করেন। বাধ্য হয়ে বিভাগীয় প্রধান তাঁর পোস্টটি মুছে দেন। আগেই মেরুনাকে জাত তুলে অপমানের নিন্দা করেছে বেথুনের ছাত্রী কমিটি। এ বার কলেজ কর্তৃপক্ষের উদ্যোগে নিন্দা প্রস্তাব নেওয়া হল। এ দিন যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক সংগঠন আবুটার পক্ষ থেকেও এর নিন্দা করা হয়েছে। সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক গৌতম মাইতি বলেন, ‘‘প্রশাসনের কাছে অবিলম্বে সমাজের এই ঘৃণ্য ব্যক্তিদের শনাক্ত করে তাদের শাস্তির দাবি জানাচ্ছে আবুটা। এই লড়াইয়ে মেরুনা মুর্মুর প্রতি সংহতিও জানাচ্ছে তারা।’’

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন