ব্যবসায়ী পবন রুইয়ার বিরুদ্ধে দায়ের হওয়া অভিযোগ বহাল রাখল কলকাতা হাইকোর্ট। তাঁর বিরুদ্ধে দায়ের হওয়া এফআইআর খারিজের আবেদন জানিয়ে হাইকোর্টে মামলা করেছিলেন পবন। বুধবার বিচারপতি তপোব্রত চক্রবর্তী সেই আর্জি খারিজ করে দেন।

সরকারি কৌঁসুলি রাজদীপ মজুমদার ও ময়ূখ মুখোপাধ্যায় এ দিন আদালতে জানান, দমদমের জেসপে অগ্নিকাণ্ড, ওই কারখানা থেকে রেলের মালপত্র চুরি এবং চুঁচু়ড়ার ডানলপ কারখানায় চুরির ঘটনায় সিআইডি মোট চারটি এফআইআর দায়ের করেছিল পবন রুইয়ার বিরুদ্ধে। ব্যবসায়ীর কৌঁসুলি অয়ন ভট্টাচার্য জানান, জেসপ কারখানায় আগুন দুর্ঘটনামাত্র। ইচ্ছাকৃত নয়। রেলের মালপত্র ও ডানলপ কারখানার মালপত্র তাঁর মক্কেল ইচ্ছে করে অন্যত্র সরাননি। সে কারণে তাঁর বিরুদ্ধে কোনও এফআইআর দায়ের হতে পারে না।

জবাবে সরকারি কৌঁসুলিরা অভিযোগ করেন, জেসপে থাকা মূল্যবান প্রামাণ্য নথি নষ্ট করার জন্যই ২০১৬ সালে সেখানে আগুন লাগানো হয়। ওই কারখানায় রেলের থেকে বরাত পাওয়া ওয়াগন তৈরির প্রচুর জিনিসপত্র মজুত করা ছিল। রেল অভিযোগ করেছিল, তারা ওয়াগন তৈরির জন্য জেসপে অনেক মাল পাঠিয়েছিল। কিন্তু একটি ওয়াগনও সরবরাহ করা হয়নি। 

সরকারি কৌঁসুলিরা এ দিন আদালতে আরও অভিযোগ করেন, জেসপ কারখানায় আগুন লাগিয়ে জিনিসপত্র নষ্ট করে দিয়ে ওই জমিতে একটি বহুতল তৈরির চেষ্টা করেছিলেন পবন। আগুন লাগানো থেকে শুরু করে রেলের মাল পাচার— সবটাই ছিল পূর্ব পরিকল্পিত।

এই মামলার শুনানি প্রথমে হচ্ছিল বিচারপতি জয়মাল্য বাগচীর আদালতে। সেখান থেকে মামলাটি পাঠানো হয় বিচারপতি চক্রবর্তীর আদালতে। কয়েক দফা শুনানির শেষে এ দিন দুপুরে রায় ঘোষণা করেন বিচারপতি।