কলকাতা চলচ্চিত্র উৎসবের জন্য নন্দন এবং রবীন্দ্র সদন চত্বরের নিরাপত্তায় এ বার ‘যন্ত্র চোখের’ নজরদারি!

লালবাজার সূত্রের খবর, আজ শুক্রবার শুরু হচ্ছে কলকাতা চলচ্চিত্র উৎসব। কাল, শনিবার থেকে নন্দন ও রবীন্দ্র সদনে দেখানো হবে দেশি-বিদেশি একগুচ্ছ সিনেমা। একই সঙ্গে নন্দনে থাকছে বিভিন্ন আলোচনাসভা। তার জন্যই নিরাপত্তার কথা মাথায় রেখে ওই চত্বরে নতুন করে বসানো হয়েছে ২৩৪টি সিসি ক্যামেরা। সেগুলির সাহায্যে আগামী এক সপ্তাহ পুলিশের তরফে ওই অঞ্চলের নিরাপত্তা দেখভাল করা হবে।

পুলিশের একাংশ জানিয়েছে, শহরের সাংস্কৃতিক কেন্দ্রস্থলে এত দিন সেই অর্থে ক্যামেরার নজরদারি ছিল না। মাত্র কয়েকটি ক্যামেরা ছিল ওই চত্বরে। সিনেমাপ্রেমীদের কথা ভেবে মূলত তাঁদের সুরক্ষায় এই ক্যামেরা বসানো হচ্ছে। তার জন্য তৈরি হয়েছে নিয়ন্ত্রণ-কক্ষ। সেখানে সব সময়ের জন্য 

থাকবেন পুলিশকর্মীরা। পাশাপাশি, উৎসব চলাকালীন নিরাপত্তা দেখভাল করার জন্য দু’জন অ্যাসিস্ট্যান্ট কমিশনারকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। দুই শিফটে ওই চত্বরে নিরাপত্তায় থাকবেন চার জন ইনস্পেক্টর পদমর্যাদার অফিসার। তাঁদের সঙ্গে থাকবে বিশাল নিরাপত্তা বাহিনী। পুলিশ জানিয়েছে, বৈধ অনুমতিপত্র ছাড়া অতিথি এবং প্রতিনিধি-সহ কারও গাড়ি নন্দন চত্বরে ঢুকতে পারবে না।

এ বারের চলচ্চিত্র উৎসবে ৭৬টি দেশের ২১৪টি সিনেমা দেখানোর কথা। এ ছাড়াও থাকছে তথ্যচিত্র এবং স্বল্পদৈর্ঘ্যের ছবি। নন্দন (১), (২), (৩), রবীন্দ্র সদন, শিশির মঞ্চ ছাড়াও শহরের মোট ১৭টি প্রেক্ষাগৃহে উৎসবের ছবি দেখানো হবে। এ ছাড়া নন্দন চত্বরে বড় পর্দায় ছবি দেখানোর ব্যবস্থা থাকছে বলে সূত্রের দাবি।