• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

পরপর অস্বাভাবিক মৃত্যু, সন্দেহ আত্মহত্যা

Death
প্রতীকী ছবি

শহরে গত তিন দিনে চার জনের অস্বাভাবিক মৃত্যু হয়েছে। প্রাথমিক তদন্তের পরে প্রতিটি ঘটনাকেই মানসিক অবসাদের কারণে আত্মহত্যা বলেই দাবি করেছে পুলিশ। একটি ঘটনায় সুইসাইড নোটও উদ্ধার হয়েছে। ঘটনাচক্রে লকডাউন চলার সময়ই এই ধরনের ঘটনা বেশি সামনে আসছে বলেই জানাচ্ছে লালবাজার।

পুলিশ জানায়, মৃতদের মধ্যে দু`জন যুবক এবং দু`জন বৃদ্ধ। বুধবার দুপুরে বাঁশদ্রোণী থানা এলাকায় সরাফ আলি মণ্ডল (৩৯) নামে এক যুবকের ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার করে পুলিশ। লকডাউনের ফলে ওই যুবক কর্মহীন হয়ে পড়েছিলেন বলে জেনেছে পুলিশ। ওই যুবকের মা, স্ত্রী এবং ছেলেমেয়ে রয়েছে। আবার এ দিন সকালেই নিউ আলিপুর থানা এলাকার একটি বস্তিতে বিজয় রায়চৌধুরী (৭৬) নামে এক বৃদ্ধের ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার হয়।

অন্য দিকে, গত সোমবার রাতে ফ্ল্যাটের দরজা ভেঙে বিসিএ পড়ুয়া এক যুবকের দেহ উদ্ধার করে বাঁশদ্রোণী থানার পুলিশ। তদন্তকারীরা জানান, একটি বেসরকারি ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজের ওই পড়ুয়ার নাম সৌরভ দুবে (২২)। হায়দরাবাদের বাসিন্দা সৌরভ বাঁশদ্রোণীতে একটি ফ্ল্যাট ভাড়া নিয়ে মায়ের সঙ্গে থাকতেন। তাঁর মা বর্তমানে হায়দরাবাদে। পুলিশ জানায়, ওই রাতে সৌরভের দাদা ফ্ল্যাটে এসে ডাকাডাকি করেও ভাইয়ের সাড়া না পেয়ে পুলিশকে খবর দেন। পুলিশ গিয়ে ফ্ল্যাটের দরজা ভেঙে সৌরভকে পাখার সঙ্গে ঝুলতে দেখে। একটি সুইসাইড নোট উদ্ধার করেছে পুলিশ। যাতে তিনি তাঁর মৃত্যুর জন্য কাউকে দায়ী করেননি।

মঙ্গলবার রাতেও রিজেন্ট পার্ক থানা এলাকার মনসাতলা লেনে সুনীলকুমার আড্ডি (৭৫) নামে এক বৃদ্ধের ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার হয়।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন