একটি বেআইনি বাড়ির ছাদ ভাঙা নিয়ে বিতর্ক শুরু হয়েছে কলকাতা পুর প্রশাসনের অভ্যন্তরে। পুরসভা সূত্রের খবর, বেহালার শীলপাড়ায় ১, বিদ্যাসাগর কলোনি ঠিকানায় রয়েছে ওই বাড়িটি। অভিযোগ উঠেছে, সেখানে বিজেপির একটি স্থানীয় কার্যালয় হওয়ার কথা। তা জেনেই সোমবার বাড়ির ছাদ ভেঙে দেয় পুর প্রশাসন। গোটা ঘটনায় নতুন মাত্রা যোগ করেছে সদ্য বিজেপিতে যোগ দেওয়া, কলকাতার প্রাক্তন মেয়র শোভন চট্টোপাধ্যায়ের প্রতিক্রিয়া। তিনি বলেছেন, ‘‘বিজেপির অফিস হবে জেনেই পুর প্রশাসন প্রতিহিংসামূলক কাজ করেছে। এটা অন্যায়।’’

পুরসভার বিল্ডিং দফতরের এক অফিসার জানান, ওই বাড়িতে বেআইনি নির্মাণের অভিযোগ আগেই এসেছিল। তার ভিত্তিতে বেআইনি অংশের ছাদ ভাঙতে এ দিন দুপুরে যান পুরকর্মীরা। ছাদটি ভেঙে দেওয়া হয়। স্থানীয় বিজেপি নেতৃত্বের অবশ্য অভিযোগ, কাউকে কিছু না জানিয়ে এবং আগে থেকে নোটিস না দিয়ে এই কাজ করেছে পুরসভা।

যদিও স্থানীয় তৃণমূল কাউন্সিলর সুদীপ পোল্লে বলেন, ‘‘বাড়ির একাংশ বেআইনি ছিল। ওই অংশটি ভাঙার জন্য মালিককে নোটিস পাঠানো হয়েছিল। কিন্তু তিনি সেটি না ভেঙে উল্টে বিজেপির অফিসের জন্য ভাড়া দিয়ে জলঘোলা করতে চেয়েছেন। আমরা নিয়ম মেনে ওই ছাদ ভেঙে দিয়েছি।’’

স্থানীয় বিজেপি সূত্রের খবর, আজ মঙ্গলবার তাদের ওই অফিসটি উদ্বোধনের কথা রয়েছে। আপাতত বিজেপি নেতৃত্ব জানিয়েছেন, তাঁরা আইনি পথে যাবেন।