• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

লকডাউনে নিয়ম ভেঙে মাছ ধরায় বিধাননগরে ধৃত ২৩

Fish hunting
প্রতীকী ছবি।

লকডাউনের দিন অধিকাংশ বাসিন্দা নিয়ম মেনে বাড়িতে থাকলেও কিছু মানুষের হুঁশ ফিরছে না। বৃহস্পতিবার লকডাউনের বিধিভঙ্গের অভিযোগে ২৩ জনকে গ্রেফতার করল পুলিশ। ১৪টি গাড়িও বাজেয়াপ্ত করা হয়। পুলিশের দাবি, নাগরিকদের একটি বড় অংশ নিয়ম মানলেও একটি অংশ এখনও সচেতন হচ্ছেন না। 

নিউ টাউনের ইকো পার্কের কাছে বৃষ্টির জমা জলে চলছিল মাছধরা। কার্যত মাছ ধরা প্রতিযোগিতা। একাধিক লোক জাল ফেলে মাছ ধরতে ব্যস্ত। কারও মুখে মাস্ক নেই। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গেলে জাল ফেলে পালাতে থাকেন সকলে। জাল-সহ কয়েক জনকে আটক করে পুলিশ। 

এখানেই শেষ নয়। যশোর রোডে দেখা গেল, গাড়ি নিয়ে বেরিয়ে পড়েছেন একদল মানুষ। কিন্তু বেরনোর উপযুক্ত কারণ দেখাতে পারেননি তাঁরা। তাঁদের বিরুদ্ধে আইনি পদক্ষেপ করে 

পুলিশ। এ দিন সকাল থেকে অবশ্য সল্টলেকের পাঁচ নম্বর সেক্টর, নিউ টাউনের তথ্যপ্ৰযুক্তি শিল্পতালুক ছিল ফাঁকা। মানুষজনকে সে ভাবে রাস্তায় দেখা যায়নি। ভিআইপি রোড, রাজারহাট, সল্টলেকে বিভিন্ন রাস্তায় পুলিশ গাড়ি কিংবা পথচারী দেখলেই জিজ্ঞাসাবাদ করেছে, গাড়ি পরীক্ষা করা হয়েছে। বিধাননগরের মূল রাস্তাগুলিতে এ দিন লোকজন কম বেরোলেও অলিগলিতে বেশ কিছু লোকজনকে দেখা গিয়েছে। 

বিধাননগর পুরসভা সূত্রের খবর, বুধবার পর্যন্ত পুর এলাকায় ৩৭০০ পার করেছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। ২৬৫৯ জন সুস্থ হয়েছেন। কিন্তু দৈনিক সংক্রমণের সংখ্যা ফের ১০০ ছাড়িয়েছে। পুলিশকর্মী থেকে কাউন্সিলর, অনেকেই আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসাধীন। কিন্তু এর পরেও নিয়ম না মানার প্রবণতা দেখা দিচ্ছে। লকডাউনের দিনেও যা পুরোপুরি বন্ধ হচ্ছে না।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন