• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

হাওড়া স্টেশনে সৌর প্যানেল

Station
চলছে কাজ নিউ কমপ্লেক্সের ছাদে। মঙ্গলবার। নিজস্ব চিত্র

হাওড়া স্টেশনের ছাদে বসানো শুরু হল সৌর বিদ্যুতের প্যানেল। 

রেলের দাবি, হাওড়া স্টেশনে সৌর বিদ্যুতের মাধ্যমে বিদ্যুতের চাহিদা মেটানোর উদ্যোগ ভারতীয় রেলের ইতিহাসেই প্রথম। এই প্রকল্প সফল হলে সারা দেশের রেল স্টেশনগুলির সামনে হাওড়াকে মডেল হিসাবে তুলে ধরা হবে। আগামী দিনে হাওড়াকে গ্রিন স্টেশনও করা হবে।

পূর্বরেল সূত্রে খবর, হাওড়া স্টেশনে মাসে গড়ে বিদ্যুতের খরচ ৭০ লক্ষ টাকা। সোলার প্যানেল বসালে সেই খরচ এক ধাক্কায় ১০ লক্ষ টাকায় নেমে আসবে। 

পূর্ব রেলের মুখ্য জনসংযোগ আধিকারিক রবি মহাপাত্র বলেন, ‘‘মঙ্গলবার থেকে নিউ কমপ্লেক্সের ছাদে ওই প্যানেল লাগানোর কাজ শুরু হয়েছে। স্টেশনের ২১টি প্ল্যাটফর্মে তা বসানো হবে।’’

রেলের দাবি, কয়েক মাসের মধ্যেই ওই প্রকল্পের কাজ শেষ হয়ে সৌরবিদ্যুৎ তৈরির কাজ শুরু হবে।  প্রতিটি প্যানেলের দাম পড়ছে ৩ হাজার টাকা। ১ লক্ষ ২০ হাজারের মতো প্যানেল বসানো হবে। রেলের দাবি, যে ভাবে বিদ্যুৎ খরচ বাবদ টাকা বাঁচবে তাতে ৫ বছরের মধ্যে খরচের টাকা উঠে যাবে। হাওড়া স্টেশনের সৌর প্যানেল থেকে ৫ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদন হলেও কাজে লাগবে ৪ মেগাওয়াট। বাকি এক মেগাওয়াট রেল বিক্রি করতে পারবে।

তবে বিদ্যুৎ সরবরাহের জন্য সৌরবিদ্যুতের পাশাপাশি বিকল্প হিসেবে ‘ইলেকট্রিক লাইন’ জরুরি পরিস্থিতির জন্যে রেখেও দেওয়া হবে।

রেল জানিয়েছে, সৌরবিদ্যুৎ থেকে স্টেশনের বিদ্যুতের চাহিদা প্রায় ৮০ শতাংশ মেটানো যাবে। 

যে বেসরকারি সংস্থা এই কাজ করছে সেটির দায়িত্বপ্রাপ্ত ইঞ্জিনিয়ার সুমিত পুনিয়া মঙ্গলবার জানান, নিউ কমপ্লেক্সে ১৭ থেকে ২১ নম্বর প্ল্যাটফর্ম পর্যন্ত প্যানেল বসানো হবে। এর পর পুরনো কমপ্লেক্সে প্যানেল বসানোর কাজ শুরু হবে। 

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন