• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

যান চলাচলে নিয়ন্ত্রণ তৃতীয়া থেকেই

Kolkata Traffic
শহর কলকাতার রাস্তায় এমন ছবি ফিরবে তৃতীয় থেকেই।

পুজোর দিনগুলিতে গণপরিবহণের ব্যবস্থাপনা নিয়ে শুক্রবার বেসরকারি বাস-মিনিবাস, অটো এবং ট্যাক্সি সংগঠনের প্রতিনিধিদের সঙ্গে বৈঠক করলেন পরিবহণ দফতরের আধিকারিকেরা। প্রাথমিক ভাবে ঠিক হয়েছে, সকালের দিকে যান চলাচল স্বাভাবিক থাকলেও বিকেল ৩টের পর থেকে তা নিয়ন্ত্রণ করা হবে। ষষ্ঠীর বদলে তৃতীয়া থেকেই যান চলাচলের উপরে নিয়ন্ত্রণ আরোপ করা হবে।

কলকাতা পুলিশ এলাকায় এ বার এখনও পর্যন্ত চার হাজারের কিছু বেশি পুজোর আবেদন জমা পড়েছে। এর মধ্যে আবাসনের পুজোই প্রায় আড়াই হাজার। বড় পুজো রয়েছে ১৭৯টি। মূলত এই সমস্ত পুজো সংলগ্ন এলাকায় ভিড়ের কথা মাথায় রেখেই বিভিন্ন রাস্তায় যান নিয়ন্ত্রণ করা হবে। বিকেল ৩টের পর থেকে অটো চলাচল বন্ধ করে দেওয়া হবে বলে জানানো হয়েছে। তবে নির্দিষ্ট কোনও এলাকায় পুলিশ মনে করলে যাত্রীদের কথা মাথায় রেখে সংক্ষিপ্ত রুটে অটো চলাচলের অনুমতি দিতে পারে।

পুজোর সময়ে বেসরকারি বাস-মিনিবাস সকাল থেকে রাত পর্যন্ত রাস্তায় থাকবে। যে সব এলাকায় রাস্তায় লোকজন থাকবেন, সেখানে প্রয়োজনে সারা রাত বাস চালানো যেতে পারে বলে জানিয়েছে পরিবহণ দফতর। বেসরকারি বাসমালিক সংগঠনগুলি জানিয়েছে, করোনা আবহে বাসের সংখ্যা রাস্তায় এমনিতেই কম। এই অবস্থায় অন্যান্য বারের মতো নিজস্ব প্রয়োজনে রাস্তা থেকে পুলিশ বেসরকারি বাস তুলে নিলে সমস্যা দেখা দেবে। ‘জয়েন্ট কাউন্সিল অব বাস সিন্ডিকেটস’-এর সাধারণ সম্পাদক তপন বন্দ্যোপাধ্যায় এবং ‘বাস-মিনিবাস ওনার্স অ্যাসোসিয়েশন’-এর যুগ্ম সম্পাদক প্রদীপনারায়ণ বসু বললেন, ‘‘কর্মী-সংখ্যা এখন কম। তাই পুলিশ এসে আমাদের বাস তুলে নিলে পরিষেবা নিয়ে সমস্যা হবে।’’ 

‘বাস-মিনিবাস সমন্বয় সমিতি’র সম্পাদক রাহুল চট্টোপাধ্যায় এবং ‘সিটি সাবার্বান বাস সার্ভিস’-এর সম্পাদক টিটো সাহা বললেন, ‘‘পুলিশ আগাম জানিয়ে সরকার নির্ধারিত ভাড়া দিলে বাস দেওয়া যেতে পারে।’’

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন