এক যুবকের উপরে হামলা চালানোর অভিযোগ উঠেছে স্থানীয় কয়েক জন যুবকের বিরুদ্ধে। সোমবার রাতে ঘটনাটি ঘটেছে বিধাননগর দক্ষিণ থানা এলাকায়। ওই ঘটনায় দুই অভিযুক্তকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। আক্রান্তের অভিযোগ, তাঁকে লক্ষ্য করে অ্যাসিড ছোড়া হয়েছে। ধৃতদের নাম অর্জুন মণ্ডল ও ভোলা চক্রবর্তী। ওই ঘটনায় আরও তিন যুবকের খোঁজে তল্লাশি শুরু করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার ধৃতদের বিধাননগর আদালতে তোলা হলে ১৪ দিনের জেল হেফাজতের নির্দেশ দেওয়া হয়।

পুলিশ সূত্রের খবর, সোমবার রাতে দত্তাবাদের এক বাসিন্দা মোটরবাইকে করে এফডি ব্লকের দিকে যাচ্ছিলেন। তাঁর অভিযোগ, স্থানীয় কয়েক জন যুবক তাঁর পিছু নেয়। এর কিছু ক্ষণ পরেই ওই যুবক বুঝতে পারেন, তাঁর পিঠ পুড়ে যাচ্ছে। গাড়ি থামিয়ে দেখেন, পিঠ থেকে ধোঁয়া বেরোচ্ছে। তাঁর চিৎকারে ছুটে আসেন স্থানীয় লোকজন। তত ক্ষণে  পিছু নেওয়া সেই যুবকেরা পালিয়েছে। স্থানীয় বাসিন্দারা জখম যুবককে বিধাননগর মহকুমা হাসপাতালে ভর্তি করান। অভিযোগ পেয়ে পুলিশ দু’জনকে প্রথমে আটক করে। পরে তাদের গ্রেফতার করা হয়। পুলিশ সূত্রের খবর, ওই যুবকের গায়ে কী ছোড়া হয়েছিল, তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। আক্রান্তের জামা ও বাইকও পরীক্ষা করা হচ্ছে।

উল্লেখ্য, এর আগেও ওই যুবকের উপরে বার দুয়েক হামলা হয়েছিল। তাঁর অভিযোগ, তিনি তৃণমূলের কর্মী। এলাকা দখলের উদ্দেশ্যে এই হামলা চালিয়েছে বিজেপি কর্মীরা। অভিযোগ সমর্থন করে স্থানীয় এক পুর প্রতিনিধির দাবি, বারবারই এমন ঘটনা ঘটাচ্ছে অভিযুক্তেরা। এলাকার শান্তি বিঘ্নিত হচ্ছে। 

বিজেপি নেতা উমাশঙ্কর ঘোষদস্তিদার অবশ্য অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, ‘‘অযথাই বিজেপিকে জড়ানো হচ্ছে। ওই হামলা দত্তাবাদে তৃণমূলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্বের ফল।’’