• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

কুকুরকে খাওয়ানো নিয়ে বিবাদ, প্রাক্তন পুলিশ কর্তার মেয়েকে মারধরের অভিযোগে ধৃত ১

Graphic
স্থানীয় বাসিন্দারা জানিয়েছেন, কুকুরকে খাওয়ানো নিয়ে বিবাদ প্রায়ই লেগে থাকত ওই দুই পরিবারের মধ্যে। ( প্রতীকী চিত্র)

কুকুরকে খাওয়ানোর নিয়ে ঝামেলার জেরে প্রাক্তন পুলিশকর্তার মেয়েকে ‘মারধর’-এর অভিযোগ উঠল এক প্রতিবেশীর বিরুদ্ধে। হরিদেবপুর থানা এলাকার ঘটনা। থানায় অভিযোগ দায়ের করা হলে আটক করা হয় অভিযুক্ত মনা মোদক নামে ওই ব্যক্তিকে। যদিও স্থানীয় সূত্রে খবর শুধু কুকুরকে খাওয়ানো নয়, এর পিছনে রয়েছে প্রোমোটিং চক্রের মদতও।

স্থানীয় বাসিন্দারা জানিয়েছেন, কুকুরকে খাওয়ানো নিয়ে বিবাদ প্রায়ই লেগে থাকত ওই দুই প্রতিবেশীর মধ্যে। সেই বিবাদ চরমে পৌঁছয় বুধবার রাতে। অভিযোগ তখনই প্রাক্তন ওই পুলিশকর্তার মেয়েকে মারধর করে মনা। ওই পুলিশকর্তার মেয়ে আশুতোষ কলেজের ইতিহাসের শিক্ষক। আরও অভিযোগ, ধারাল অস্ত্র দিয়েও তাঁকে আঘাত করা হয়। ঘটনাটি ঘটার সময় মেয়ের থেকে খানিক দূরে দাঁড়িয়ে ছিলেন বাবা। তিনিই মেয়েকে উদ্ধার করেন। এর পর হরিদেবপুর থানায় অভিযোগ দায়ের হয়। বৃহস্পতিবার সকালে মনাকে আটক করা হয়।এ র পরই হরিদেবপুর থানায় অভিযোগ দায়ের হয়। বৃহস্পতিবার সকালে মনাকে আটক করা হয়।

স্থানীয় সূত্রে খবর, শুধু কুকুরকে খাওয়ানো নিয়ে এই ঘটনা ঘটেনি। এর নেপথ্যে প্রোমোটিং চক্র রয়েছে বলেও জানা যাচ্ছে। প্রাক্তন ওই পুলিশকর্তার বাড়ি প্রোমোটিং করার জন্য মাঝেমধ্যেই চাপ দেওয়া হত বলে খবর।

আরও খবর: করোনা টিকার উদ্বোধনেও রাজনীতির নারদ-নারদ

শোনা যাচ্ছে, প্রোমোটারদের প্রস্তাবে তিনি রাজি ছিলেন না। ফলে স্থানীয় প্রোমোটিং চক্রের অনেক দিন ধরেই ওই পরিবারের উপর রাগ ছিল। কুকুরকে খাওয়ানোর ঘটনাকে উপলক্ষ করেই কলকাতা পুলিশের প্রাক্তন ওই কর্তার মেয়েকে মারধর করা হয় বলে অভিযোগ। 

আরও খবর: মাঝেরহাটে স্বাভাবিক ছন্দে ফেরার অপেক্ষার শেষ

 

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন