পুলিশ সেজে প্রতারণার অভিযোগে চার ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেছে চারু মার্কেট থানার পুলিশ।

তদন্তকারীরা জানান, শুক্রবার গভীর রাতে চার পেটি দামি সিগারেট নিয়ে ভবানী সিনেমা হলের সামনে দাঁড়িয়েছিলেন দুই যুবক। ওই সিগারেটের বাক্স নিয়ে পার্ক স্ট্রিটে মালিকের বাড়িতে পৌঁছনোর কথা ছিল তাঁদের। পুলিশ সূত্রের খবর, রাত সাড়ে তিনটে নাগাদ হঠাৎই তিন ব্যক্তি নিজেদের পুলিশ পরিচয় দিয়ে ওই দুই যুবকের কাছে এসে নানা কৈফিয়ত চান। তাঁরা ওই দুই যুবককে থানায় যেতে হবে বলে ভবানী সিনেমা হলের থেকে কিছুটা দূরে নিয়ে যান। পুলিশকে অভিযোগকারী দুই যুবক জানিয়েছেন, কিছু ক্ষণ পরে আগের জায়গায় ফিরে এসে তাঁরা দেখেন চার পেটি দামি সিগারেটই উধাও। সে দিনই চারু মার্কেট থানায় অভিযোগ দায়ের করেন প্রভাস প্রামাণিক নামে এক ব্যক্তি। 

তদন্তে নেমে পুলিশ শনিবার রাতে ওই প্রতারণা চক্রের চার জনকে গ্রেফতার করে। তাঁদের নাম যথাক্রমে ধর্মেন্দ্র সিংহ, মনীশ সিংহ, সোমনাথ ঠাকুর এবং স্বপন দাস। এই ঘটনায় এখনও এক জন ফেরার রয়েছেন বলে পুলিশ জানায়। তদন্তকারীরা জানান, নিজেদের পুলিশ পরিচয় দিয়ে অভিযুক্তেরা প্রতারণা করেছেন। ধৃতদের জিজ্ঞাসাবাদ করে পুলিশ জানতে পেরেছে, প্রথমে ভবানী সিনেমা হলের সামনে থেকে একটি গাড়ি করে সিগারেটের বাক্সগুলি আলিপুরের গোপাল নগরে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখান থেকে সে দিন রাতেই সেগুলি নিয়ে যাওয়া হয় মোমিনপুরে। তার পরে সেখান থেকে একটি অ্যাপ-ক্যাবে করে হাওড়ার বেলগাছিয়ায় নিয়ে গিয়ে সেগুলি মজুত করা হয়। শনিবার রাতে বেলগাছিয়া থেকে বাক্সভর্তি সিগারেটের বাক্সগুলি উদ্ধার করেছে পুলিশ। ধৃত চার জনকে রবিবার আলিপুর আদালতে তোলা হলে বিচারক তাঁদের এক দিনের পুলিশ হেফাজতের নির্দেশ দেন। 

ভবানী সিনেমা হলের থেকে যে গাড়িতে চেপে সিগারেটের বাক্সগুলি নিয়ে যাওয়া হয়েছিল সেটির খোঁজে তল্লাশি শুরু করেছে পুলিশ। পাশাপাশি, ধৃতদের জিজ্ঞাসাবাদ করে আর এক পলাতকের খোঁজে তল্লাশি শুরু করেছে পুলিশ।