বেআইনি সোনার বাট-সহ গ্রেফতার হল চার জন। লালবাজার জানিয়েছে, মঙ্গলবার নিউ মার্কেট থানা এলাকার সদর স্ট্রিটে হানা দিয়ে ওই সোনা বাজেয়াপ্ত করে কলকাতা পুলিশের স্পেশ্যাল টাস্ক ফোর্স বা এসটিএফ। একই সঙ্গে গোয়েন্দারা উদ্ধার করেছেন প্রায় ৯৮ লক্ষ নগদ টাকা।

পুলিশ জানিয়েছে, ধৃত চার যুবকের নাম সৈকত অধিকারী, পার্থ ভৌমিক, মলয় ভৌমিক এবং সুব্রত অধিকারী। এদের মধ্যে দক্ষিণ ২৪ পরগনার নোদাখালির বাসিন্দা মলয় এবং পার্থ সম্পর্কে ভাই। বাকি দু’জনের বাড়ি হাওড়ার উলুবেড়িয়ায়। ধৃতেরা ওই টাকা এবং সোনার কোনও নথি দেখাতে পারেনি বলে জানিয়েছে পুলিশ। উদ্ধার হওয়া সোনার বাটগুলি ২৪ ক্যারাটের। গোয়েন্দারা জানিয়েছেন, ওই সোনার বাজারদর প্রায় আড়াই কোটি টাকা।

প্রাথমিক তদন্তের পরে গোয়েন্দাদের দাবি, বাংলাদেশ থেকে সড়কপথে ওই সোনা আনা হয়েছিল কলকাতা-সহ রাজ্যের বিভিন্ন জায়গায় পাচারের জন্য। মূলত রাজ্যের স্বর্ণ ব্যবসায়ীদের একাংশের কাছে ওই সোনা পৌঁছে দেওয়া হত। পুলিশের দাবি, কলকাতা তথা রাজ্যের স্বর্ণ ব্যবসায়ীদের একাংশ এ ভাবে নিয়মিত বাংলাদেশ থেকে পাচার হয়ে আসা সোনা কম দামে কিনে তা থেকে গয়না বানিয়ে বিক্রি করছেন। তবে ধৃত যুবকেরা ওই সোনা কোথা কাছ থেকে পেয়েছিল তা জানা যায় নি। তাদের সঙ্গে জাল নোটের কারবারিদের যোগাযোগের সম্ভাবনাও উড়িয়ে দেওয়া যাচ্ছে না বলে এসটিএফ সূত্রের খবর।