• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

মাদকের নেশা ছাড়ানো নিয়ে বচসায় নিজেকেই ছুরিকাঘাত যুবকের, গরচায় উদ্ধার দেহ

Dead body
প্রতীকী ছবি।

মাদকের নেশা ছাড়ার জন্য এক যুবককে বোঝাতে তাঁর বাড়িতে গিয়েছিলেন আত্মীয়রা। তবে তা নিয়ে শুরু হয় অশান্তি। অভিযোগ,পরিবারের সদস্যদের সামনে হঠাৎই নিজেকে ছুরিকাঘাত করে বসেন ওই যুবক। সেই আঘাতের জেরেই মৃত্যু হল গরচার এক যুবকের। সোমবার বিকেলে গড়িয়াহাট এলাকায় গরচা লেনের ওই ঘটনার তদন্তে নেমেছে পুলিশ।

পুলিশ সূত্রে খবর, গরচা লেনের বাসিন্দা জুনেদ আহমেদ ওরফে ভিকি (২১) মাদকাসক্ত ছিলেন বলে জানিয়েছে তাঁর পরিবার। জুনেদকে বুঝিয়েসুজিয়ে নেশা ছাড়ানোর জন্য সোমবার বিকেল সওয়া ৫টা নাগাদ গরচায় তাঁর বাড়িতে পৌঁছন জুনেদের শ্যালক মহম্মদ আরশাদ এবং তাঁর এক বন্ধু। সেখানে পরিবারের অন্যান্য সদস্যও উপস্থিত ছিলেন।

পুলিশের কাছে বয়ানে জুনেদের বৃদ্ধ দাদু মহম্মদ ইব্রাহিম জানিয়েছেন, পরিবারের সকলের সামনেই নেশা ছাড়ার জন্য জুনেদকে বোঝাতে থাকেন আরশাদ এবং তাঁর বন্ধু। তবে তাঁদের কথা শুনতে রাজি ছিলেন না জুনেদ। এ নিয়ে অশান্তি শুরু হয়। হঠাৎই রেগে গিয়ে ছুরি বার করেন জুনেদ। বচসার মাঝে আচমকাই তা নিয়ে আরশাদের ওপর চড়াও হন তিনি। আরশাদকে ছুরি দিয়ে আঘাত করারও চেষ্টা করেন। তবে কোনও রকমে নিজেকে বাঁচান আরশাদ। ওই ঝামেলার মধ্যে হঠাৎ নিজের তলপেটের ডানদিকে ছুরি বসিয়ে দেন জুনেদ। খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পৌঁছয় গরচা থানার পুলিশ। সেখানেই ছুরিবিদ্ধ জুনেদের দেহ উদ্ধার করে তারা।

আরও পড়ুন: আনন্দপুরের অভিজাত আবাসনের ২৪ তলা থেকে ‘ঝাঁপ’ ছাত্রের, ঘটনাস্থলে গোয়েন্দারা

আরও পড়ুন: মুম্বই থেকে ফিরে ‘বদ্ধ’ জীবন, অবসাদেই কি ‘আত্মঘাতী’ ডন বস্কোর ছাত্র

প্রত্যক্ষদর্শীদের দাবি, জুনেদের ছুরিবিদ্ধ দেহ উদ্ধার করে মেডিক্যাল কলেজে নিয়ে যাওয়া হলে চিকিৎসকেরা তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। অন্যদিকে, জুনেদের সঙ্গে ধস্তাধস্তিতে আহত হয়েছেন আরশাদও। তাঁকে পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে বলে জানিয়েছেন সেখানকার চিকিৎসকেরা। 

ঘটনার তদন্তে নেমে পুলিশ জানিয়েছে, জুনেদের দেহ ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন