পরনে নীল প্যান্ট, হলুদ গেঞ্জি। একটি বহুতলের সিলিং থেকে গলায় দড়ির ফাঁস দেওয়া অবস্থায় ঝুলছেন এক যুবক। গার্ডেন হাই স্কুলের পঞ্চম শ্রেণির ইংরেজি বই ‘অলিভার টুইস্ট’-এ থেকে এই বিতর্কিত ছবি তুলে নিলেন কর্তৃপক্ষ। প্রধান শিক্ষিকা রাজশ্রী বিশ্বাস বলেন, ‘‘বিষয়টি আমাদের নজরে আসার পরেই পাঠ্যবই থেকে ওই ছবি তুলে দেওয়া হয়েছে।’’

পঞ্চম শ্রেণির ইংরেজি পাঠ্যপুস্তকে এই বিতর্কিত ছবিটি প্রথমে কর্তৃপক্ষের নজরে আনেন অভিভাবকেরাই। তাঁরা জানান, ওই ছবি দেখে কী ভাবে ফাঁস লাগানো হয় প্রশ্ন করছিল তাঁদের ছেলেমেয়েরা। ছবিটি বই থেকে তুলে নেওয়ায় খুশি ওই স্কুলের পঞ্চম শ্রেণির ছাত্রছাত্রীদের অভিভাবকেরা। এক অভিভাবক বলেন, ‘‘এই বছর গরমের ছুটির আগে বইটি চেয়ে নেন স্কুল কর্তৃপক্ষ। ছুটির শেষে স্কুল খোলার পরে ওই বই ফেরত দেন তাঁরা। তখন দেখা যায়, গলায় দড়ির ফাঁস দেওয়া ছবির জায়গায় ফাঁকা পাতা।’’

মনোবিদদের মতে, এই ধরনের ছবি ১০ বছরের বাচ্চাদের মধ্যে যথেষ্টই প্রভাব ফেলতে পারে। যা থেকে বিপদের আশঙ্কাও থাকতে পারে। তবে শেষ পর্যন্ত এই ছবি তুলে নেওয়ায় বাচ্চাদের মানসিক চাপ কমবে বলেই মনে করছেন অভিভাবকেরা।