• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

এ বার হার ছিনতাই পুলিশের

থানা থেকে ঢিল ছোড়া দূরত্বে এক মহিলা পুলিশকর্মীর হার ছিনতাই করে নিয়ে পালাল এক দুষ্কৃতী।

বুধবার দুপুরে ঘটনাটি ঘটেছে ফুলবাগান থানার সামনে। ওই মহিলা কর্মীর নাম মণিকা দাস। তাঁর বাড়ি নারকেলডাঙায়। তিনি ফুলবাগান থানায় গ্রিন পুলিশ হিসেবে কর্মরত। রাত পর্যন্ত ওই ঘটনায় মোটরসাইকেল আরোহীকে চিহ্নিত করা যায়নি।

লালবাজার সূত্রের খবর, গত শনিবারই দু’টি ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটেছিল চারু মার্কেট এবং টালিগঞ্জ থানা এলাকায়। তার রেশ কাটার আগেই বুধবার থানার ৫০ মিটারের মধ্যেই ছিনতাইবাজদের শিকার হতে হল থানারই এক কর্মীকে। থানার অদূরে প্রকাশ্য ছিনতাইয়ের ঘটনায় প্রশ্নে পুলিশি নজরদারি।

পুলিশ জানায়, কাজের সূত্রে ফুলবাগান মোড়ে এক নাগরিকের বাড়ি গিয়েছিলেন মণিকা। সেখান থেকে হেঁটে ভিআইপি মার্কেটের পাশের রাস্তা দিয়ে থানার কাছে আর এক জনের বাড়িতে যাচ্ছিলেন। সেই সময় কালো রঙের বাইকে করে পিছন থেকে তাঁর হার ছিনিয়ে পালায় এক দুষ্কৃতী। তার মাথায় হেলমেট ছিল।

প্রাথমিক তদন্তের পরে পুলিশ জানিয়েছে, ছিনতাইয়ের পরে দুষ্কৃতী থানার সামনে দিয়েই সুভাষ পার্কের দিকে চলে যায়। সেই সময় থানায় উপস্থিত পুলিশ কর্তারা অ্যাপোলো হাসপাতালে এক রোগীর মৃত্যুর তদন্তে হাসপাতালের এক কর্তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করছিলেন।

এ দিকে, থানার সামনে ওই মহিলা কর্মীর ছিনতাইয়ের খবর পৌছতেই নড়েচড়ে বসেন পুলিশ অফিসাররা। অভিযোগকারিণীকে নিয়েই ঘটনাস্থলে পৌঁছে যান তদন্তকারী। খতিয়ে দেখা হয় সেখানকার সিসিটিভি ফুটেজও। পুলিশের দাবি, সিসিটিভিতে বাইক আরোহীকে দেখা গেলেও গাড়ির নম্বর প্লেট বোঝা যাচ্ছে না। তদন্তকারীদের অনুমান, ওই দুষ্কৃতী দীর্ঘক্ষণ ধরেই লক্ষ করছিলেন সাদা পোশাকে থাকা ওই মহিলা কর্মীকে।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন