• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

বিকাশ ভবনের সামনে অবস্থানের অনুমতি

Bikash Bhavan
বিকাশ ভবন।—ফাইল চিত্র।

বিকাশ ভবন থেকে ১০০ মিটার দূরে ৩০০ জন পার্শ্ব শিক্ষক অবস্থান বিক্ষোভ করতে পারবেন। বাকিরা থাকবেন বিকাশ ভবনের কাছে বিধানচন্দ্র রায়ের মূর্তির আশপাশে। রবিবার এমনই নির্দেশ দিয়েছেন কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি সঞ্জীব বন্দ্যোপাধ্যায় এবং বিচারপতি কৌশিক চন্দের ডিভিশন বেঞ্চ।

পার্শ্ব শিক্ষকদের বিকাশ ভবনের সামনে বিক্ষোভ সমাবেশ করতে দিচ্ছিল না রাজ্য। এই নিয়ে মামলা হয়। বিচারপতি দেবাংশু বসাক নির্দেশ দেন, তাঁরা বিকাশ ভবন থেকে ১০০ মিটার দূরে সভা করতে পারবেন। সেই নির্দেশকে চ্যালেঞ্জ করে রাজ্য সরকার আপিল মামলা করে। ‘পার্শ্ব শিক্ষক ঐক্য মঞ্চ’-এর যুগ্ম আহ্বায়ক ভগীরথ ঘোষ বলেন, ‘‘ছুটির দিনে আদালত খুলে এই রায় দেওয়া কার্যত নজিরবিহীন। সোমবার থেকে বেতন কাঠামো বাড়ানোর দাবিতে বিকাশ ভবনের সামনে অবস্থান বিক্ষোভে বসছি।’’

পার্শ্ব শিক্ষকরা জানাচ্ছেন তাঁরা ভাতা পান। প্রাথমিক শিক্ষকেরা পান ১০ হাজার, উচ্চ প্রাথমিক শিক্ষকেরা ১৩ হাজার। এই ভাতার পরিবর্তে তাঁরা চাইছেন বেতন কাঠামো। ভগীরথবাবু জানাচ্ছেন, তাঁরা সমগ্র শিক্ষা অভিযানের কর্মী। পার্শ্ব শিক্ষকদের বেতন কেন্দ্র দেয় ৬০ শতাংশ ও রাজ্য ৪০ শতাংশ। বর্তমানে অন্য রাজ্যগুলিতে কেন্দ্রীয় সরকার তাঁদের বেতন প্রাথমিকে দেয় ১৫ হাজার ও উচ্চ প্রাথমিকে ২০ হাজার টাকা। এর সঙ্গে রাজ্যের আরও ১০ হাজার এবং ১৩ হাজার যোগ হয়ে অন্য রাজ্যের পার্শ্ব শিক্ষকেরা মূল বেতন পান প্রাথমিকে ২৫ হাজার ও উচ্চ প্রাথমিকে ৩৩ হাজার। কিন্তু পশ্চিমবঙ্গের পার্শ্ব শিক্ষকেরা প্রাথমিকে পান ১০ হাজার ও উচ্চ প্রাথমিকে ১৩ হাজার টাকা। কেন এই বৈষম্য প্রশ্ন তুলেছেন তাঁরা।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন