• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

বৃদ্ধের পাশে স্বাস্থ্য কমিশন

bed
প্রতীকী ছবি।

বেসরকারি হাসপাতালে শয্যা না-পেয়ে সারা রাত অসুস্থ বাবাকে নিয়ে শহরের এক প্রান্ত থেকে অন্য প্রান্তে ঘুরেছিলেন মেয়ে। শেষ পর্যন্ত চিকিৎসক বন্ধুদের সাহায্যে একবালপুরের নার্সিংহোমে ৭৫ বছরের অলোকনাথ বন্দ্যোপাধ্যায়কে ভর্তি করান মেয়ে এণাক্ষী মুখোপাধ্যায়। ঘটনার কথা জেনে সোমবার ওই বৃদ্ধকে বেসরকারি হাসপাতালে স্থানান্তরিত করতে সচেষ্ট হল স্বাস্থ্য কমিশন।

রিষড়ার বাসিন্দা ওই বৃদ্ধ সিওপিডি-র রোগী। শুক্রবার রাতে তাঁর শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে বাবাকে প্রথমে আনন্দপুরের বেসরকারি হাসপাতালে নিয়ে যান মেয়ে। সেখানকার চিকিৎসকদের পরামর্শেই আগে বৃদ্ধের চিকিৎসা হয়েছিল। এণাক্ষী জানান, বুকের এক্স-রে এবং এবিজি করানোর পরে বলা হয়, তাঁর বাবার করোনার উপসর্গ থাকায় কোভিড আইসোলেশন ওয়ার্ডের আইসিইউ-এ রেখে চিকিৎসা করতে হবে। কিন্তু তাঁদের আইসিইউ শয্যা নেই। এর পরেই বৃদ্ধকে অ্যাম্বুল্যান্সে নিয়ে রাতভর ঘোরার পরে শনিবার দুপুরে একবালপুরের নার্সিংহোমে ভর্তি করানো হয়।

এ দিন এণাক্ষীর সঙ্গে যোগাযোগ করেন স্বাস্থ্য কমিশনের চেয়ারম্যান অসীম বন্দ্যোপাধ্যায়। আনন্দপুরের বেসরকারি হাসপাতালের তরফেও এণাক্ষীকে ফোন করা হয়। তিনি জানান, আজ, মঙ্গলবার ওই হাসপাতাল বৃদ্ধকে ভর্তি নেবে। তা সম্ভব না হলে অন্য কোনও ভাল বেসরকারি হাসপাতালে অলোকবাবুকে ভর্তি করা হবে বলে জানিয়েছে স্বাস্থ্য কমিশন। 

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন