• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

পর্নস্টারের শরীরের উপর তাঁর মুখ! থানায় ছুটলেন গৃহবধূ

Facebook
গ্রাফিক: তিয়াসা দাস।

ফেসবুকে বন্ধুত্বের জন্য অনুরোধ পাঠিয়েছিলেন সুদীপ্তা (প্রিয়া) নামে এক মহিলা। প্রোফাইলেও মহিলার ছবি। কোনও সন্দেহ করার জায়গা ছিল না। বন্ধু হিসেবে নিজের ফ্রেন্ড লিস্টে সুদীপ্তাকে জায়গা দেন আনন্দপুরের ওই গৃহবধূ। কিন্তু তার পরেই তাঁকে চমকে দিয়ে ফেসবুক মেসেঞ্জারে ওই মহিলার মুখের ছবি এক পর্নস্টারের দেহের উপর সুপার ইম্পোজ করে পাঠান ওই সুদীপ্তা। সেই ছবি পাঠিয়ে শুরু হয় ব্ল্যাকমেল

আনন্দপুর থানা এবং কলকাতা পুলিশের সাইবার থানায় অভিযোগে ওই মহিলা জানিয়েছেন, ওই ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে দেওয়ার হুমকি দিতে থাকেন সুদীপ্তা নাম নিয়ে ভুয়ো অ্যাকাউন্ট খোলা ওই ব্যক্তি। মহিলা গোটা ঘটনা তাঁর স্বামীকে জানান। পেশায় ব্যবসায়ী তাঁর স্বামীও গোটা ঘটনা শুনে আতান্তরে পড়েন। কারণ, তার মধ্যেই ওই ব্যক্তি এক বার সুপার ইম্পোজ করা ছবি নিজের ফেসবুক অ্যাকাউন্টে এক বার আপলোড করে ফের মুছে দেন। অর্থাৎ, হুমকিটা যে ফাঁকা নয় তা বোঝাতে চেষ্টা করেন। ফলে সামাজিক সম্মানের ভয়ে ওই দম্পতি ভুয়ো অ্যাকাউন্টের মালিকের দাবি মতো চ্যাট করে যাচ্ছেন।

এমনকি, পুলিশে অভিযোগ জানানোর পরেও তাঁরা চ্যাট করছেন। ওই মহিলা বুধবার বলেন, ‘‘পুলিশ আমাদের ওই অ্যাকাউন্টটি ব্লক করে দিতে বলেছিল। কিন্তু আমরা সাহস করে ব্লক করতে পারছি না। আমাদের ভয়, ব্লক করলে ওই ছবি ওই লোকটি ছড়িয়ে দেবে। তাই যত ক্ষণ পুলিশ ওকে ধরতে পারছে না তত দিন আমরা এ ভাবেই চ্যাট চালিয়ে যেতে বাধ্য হচ্ছি।”

আরও পড়ুন: রত্নাকে নিয়ে ভোটপ্রস্তুতি শুরুর নির্দেশ পার্থর, শোভনের জন্য বার্তা স্পষ্ট?

আরও পড়ুন: জেএনইউ-র সার্ভার রুমে ভাঙচুরই হয়নি, আরটিআইয়ের উত্তরে চাঞ্চল্যকর তথ্য​

যদিও লালবাজারের এক শীর্ষ পুলিশকর্তা ওই আতঙ্ক অনেকটাই অমূলক বলে দাবি করেছেন। তিনি বলেন, ‘‘আমরা ফেসবুক সংস্থার সঙ্গে যোগাযোগ করে ওই অ্যাকাউন্টটি ব্লক করার আবেদন জানাচ্ছি। সেই সঙ্গে ওই অভিযুক্তকে পাকড়াও করার চেষ্টা চালানো হচ্ছে।’’

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন