এক মাস পরে হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেতে চলেছেন নাগেরবাজার বিস্ফোরণে আহত শুভম দে। আজ, সোমবার তাঁকে এসএসকেএম থেকে ছাড়ার কথা।

গাঁধী জয়ন্তীর সকালে, ২ অক্টোবর বিস্ফোরণে কেঁপে উঠেছিল নাগেরবাজারের কাজিপাড়া। ঘটনায় আহত হন মধ্যমগ্রামের গ্রিন পার্কের বাসিন্দা, ধূপবিক্রেতা শুভম। বিস্ফোরণের জেরে মাথায় স্‌প্লিন্টার ঢুকে যায় তাঁর। পরিস্থিতির কারণে অস্ত্রোপচারের পরিবর্তে ওষুধের মাধ্যমেই চিকিৎসা চলেছে শুভমের। কয়েক দিন আগে তাঁকে ক্রিটিক্যাল কেয়ার ইউনিট (সিসিইউ) থেকে জেনারেল বেডে স্থানান্তরিত করা হয়েছিল। আহতের আত্মীয় অজিত দত্ত জানান, সোমবার দুপুরে হাসপাতাল থেকে ছাড়া হবে শুভমকে, তেমনই জানিয়েছেন চিকিৎসকেরা। এমনকি, গত শুক্রবার চিকিৎসকদের দল ঘটনার আগে-পরের বিষয় ওই যুবকের কাছ থেকে জানতে চান। তিনি ঠিক মতোই জবাব দিয়েছেন। তবে এখনও শুভম অনেকটাই দুর্বল আছেন। 

ঘটনার পর থেকেই এসএসকেএমের বার্ন ইউনিটে রয়েছেন আর এক আহত সীতা ঘোষ। ঘটনায় মৃত্যু হয়েছিল তাঁর আট বছরের ছেলে বিভাসের (বিল্টু)। সীতার অবস্থার উন্নতি হলেও এখনই হাসপাতাল থেকে ছাড়ার বিষয়ে চিকিৎসকেরা কিছু জানাননি বলে দাবি তাঁর স্বামী জন্মেজয় ঘোষের।