• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

মোমিনপুরে স্টেশনে আপত্তি সেনার, ঝুলে জোকা-বিবাদী বাগ মেট্রো

1

জট শেষ পর্যন্ত কেটেও কাটল না। জোকা-বিবাদী বাগ মেট্রো প্রকল্প সেই ঝুলেই থাকল।

বুধবার কলকাতা মেট্রো রেলওয়ে কর্তৃপক্ষকে চিঠি দিয়ে কেন্দ্রীয় প্রতিরক্ষা মন্ত্রক জানিয়ে দিয়েছে, জোকা-বিবাদী বাগ মেট্রো প্রকল্পের জন্য রেসকোর্স, ভিক্টোরিয়া এবং ময়দানের জমি ছেড়ে দিতে রাজি ভারতীয় সেনাবাহিনী। ফোর্ট উইলিয়াম সংলগ্ন ওই সব এলাকায় মাটির নীচে মেট্রোর লাইন পাতার কাজেও আপত্তি নেই তাদের। কিন্তু এর পরে সেনাবাহিনীর তরফে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে, ওই প্রকল্পের জন্য সেনাবাহিনীর কমান্ড হাসপাতালের সামনে মোমিনপুর স্টেশন তৈরির জন্য প্রস্তাবিত জমিটি ছাড়া যাবে না।

কলকাতা মেট্রো রেলওয়ে কর্তৃপক্ষের এক কর্তার কথায়, ‘‘মোমিনপুর স্টেশনের আগে থেকেই জোকা-বিবাদী বাগ প্রকল্পের লাইন মাটির তলায় যাওয়ার কথা। ওই স্টেশনের অনুমতি না মিললে ভূগর্ভস্থ লাইন পাতার কাজই শুরু করা যাবে না।’’ মেট্রোর বিস্তারিত রিপোর্ট অনুযায়ী, মোমিনপুর স্টেশনের আগে ছিল মাঝেরহাট স্টেশন, পরে ভিক্টোরিয়া। প্রথমে মেট্রো মোমিনপুর স্টেশন বাদ দিয়েই প্রকল্প সম্পূর্ণ করার কথা ভেবেছিল। কিন্তু তাতে সুড়ঙ্গের মধ্যে দিয়ে অনেকটা পথ যাত্রীদের নিয়ে যেতে হবে, যা অত্যন্ত ঝুঁকিপূর্ণ বলে দাবি মেট্রো-কর্তাদের। এই অবস্থায় কী ভাবে ওই অংশের কাজ সম্পূর্ণ করা যায়, তা নিয়ে চিন্তায় মেট্রো কর্তৃপক্ষ।

জোকা মেট্রো প্রকল্প বিবাদী বাগের বদলে এসপ্লানেডে শেষ হবে, ইতিমধ্যেই তা চূড়ান্ত হয়ে গিয়েছে। এসপ্লানেডেই জোকা মেট্রো ছাড়াও একসঙ্গে মিশছে বর্তমান মেট্রো রুট এবং ইস্ট-ওয়েস্ট মেট্রো।

এর পরেই জট তৈরি হয় মোমিনপুর স্টেশন তৈরি এবং ময়দানের উপর দিয়ে মেট্রো রুট নিয়ে যাওয়া নিয়ে। নিরাপত্তার কারণে এই দুই কাজে অনুমতি দেওয়ার ব্যাপারে বেঁকে বসে সেনাবাহিনী। অবশেষে ময়দান, ভিক্টোরিয়া এবং রেস কোর্সের মাটির তলা দিয়ে কাজ করার অনুমতি দিয়েছে সেনাবাহিনী। এমনকী, ওই অংশের জমি রেলমন্ত্রকের হাতে তুলে দিতেও আপত্তি নেই সেনার। বদলে, মেট্রোকে সমপরিমাণ জমি সেনাবাহিনীকে দিতে হবে। মেট্রোর ওই কর্তার কথায়, ‘‘ইতিমধ্যেই আমরা কাচরাপাড়ায় ওই পরিমাণ জমি সেনাকে দেওয়ার জন্য চিহ্নিত করেছি।’’ একইসঙ্গে পার্ক স্ট্রিট এবং ভিক্টোরিয়ায় স্টেশন তৈরির ব্যাপারেও অনুমতি দিয়েছে সেনা। তবে ভিক্টোরিয়া সংলগ্ন এলাকায় স্টেশন তৈরির জন্য এবং মাটির তলা দিয়ে লাইন নিয়ে যাওয়ার জন্য তথ্য ও সম্প্রচার, পরিবেশ মন্ত্রক এবং কলকাতা হাইকোর্টেরও অনুমতি নিতে হবে কলকাতা মেট্রো রেলওয়ে কর্তৃপক্ষকে।

রাজ্য পরিবহণ দফতরের এক কর্তা বলেন, ‘‘মোমিনপুরে স্টেশন তৈরির অনুমতি না মেলায় আমরা খানিকটা হতাশ। রাজ্যের তরফে ফের এ ব্যাপারে দিল্লির কাছে দরবার করার কথা ভাবা হচ্ছে। তত দিনে মেট্রোকে আমরা বাকি কাজকর্ম এগিয়ে রাখার কথা বলেছি।’’

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন