• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

মেট্রো নিগ্রহে প্রত্যক্ষদর্শীদের ডাকেনি পুলিশ

hugging
নীতি পুলিশের দাদাগিরির বিরুদ্ধে পরস্পরকে আলিঙ্গন করে প্রতিবাদ। —নিজস্ব চিত্র।

মেট্রোয় যুগলকে হেনস্থার ঘটনার পর ৭২ ঘণ্টা পেরিয়ে গিয়েছে। কিন্তু বৃহস্পতিবার রাত পর্যন্ত অভিযুক্তদের চিহ্নিত করতে পারেনি পুলিশ। নিগৃহীতেরাও পুলিশের কাছে অভিযোগ দায়ের করেননি। এই ঘটনায় কয়েকটি ছবি-সহ একটি স্মারকলিপি জমা পড়েছিল দমদম স্টেশনে। সেটি সিঁথি থানায় পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে বলে মেট্রো জানিয়েছে। তার পরে বিষয়টি তেমন এগোয়নি বলেই পুলিশ সূত্রের দাবি।

লালবাজারের একটি সূত্রের দাবি, এ ক্ষেত্রে নিগৃহীতেরা অভিযোগ করেননি। সিসিটিভি ফুটেজেও মারধর স্পষ্ট ধরা প়ড়েনি। তাই মামলা রুজু এবং প্রমাণ সংগ্রহের ক্ষেত্রে জটিলতা রয়েছে। যদিও পুলিশের একাংশ বলছে, এ ক্ষেত্রে প্রত্যক্ষদর্শীদের ডেকে পাঠিয়ে তথ্যপ্রমাণ জোগাড় করা সম্ভব। কিন্তু সে দিন ঘটনাস্থলে উপস্থিত বলে যাঁরা দাবি করেছেন, তাঁদের কারও সঙ্গে বৃহস্পতিবার রাত পর্যন্ত কথা বলেনি পুলিশ। পুলিশের একাংশের বক্তব্য, এই ঘটনায় থানা স্বতঃপ্রণোদিত ভাবে মামলা রুজু করতে পারে না। এক পুলিশকর্তা বলেন, ‘‘অভিযোগ না মেলায় এখনও মামলা রুজু করা যায়নি। তবে থানায় জেনারেল ডায়েরিতে ঘটনা নথিভুক্ত হয়েছে। অনুসন্ধান চলছে।’’

মেট্রোর কাছ থেকে দমদম স্টেশনের সিঁড়ির একটি সংক্ষিপ্ত ভি়ডিও মিলেছে। তাতে নিগৃহীত, অভিযুক্ত এবং প্রত্যক্ষদর্শীদের এবং বচসার কিছুটা ছবি মিলেছে। সেই ছবি ধরেই খোঁজ চলছে। যে সব যাত্রী ওই দিন ঘটনাস্থলে হাজির ছিলেন, তাঁদের সঙ্গেও কথা বলা হবে। যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের এক ছাত্র-সহ যাঁরা বিভিন্ন সংবাদমাধ্যম ও সোশ্যাল মিডিয়ায় নিজেদের প্রত্যক্ষদর্শী বলে দাবি করেছেন, তাঁদেরও ডেকে পাঠানো হবে। প্রত্যক্ষদর্শীদের কাছ থেকে ঘটনার ছবিও সংগ্রহ করতে পারেন তদন্তকারীরা। লালবাজারের একটি সূত্র জানাচ্ছেন, নিগৃহীতদের চিহ্নিত করতে বিভিন্ন মেট্রো স্টেশনের গেটের সামনে থাকা সিসিটিভি ক্যামেরার ছবিও সংগ্রহ করা হচ্ছে।

এই ঘটনায় যেমন নিন্দার ঝড় উঠেছে, তেমনই সোশ্যাল মিডিয়ায় বিভিন্ন ব্যক্তিকে চিহ্নিত করে আক্রমণও শানানো হচ্ছে। পরিজনদের দাবি, ওই ব্যক্তিদের অনেকে সেই সন্ধ্যায় বাড়ি থেকেই বেরোননি। কিন্তু সোশ্যাল মিডিয়ায় আক্রমণে অসুস্থ হয়ে পড়ছেন। পুলিশের এক কর্তার মন্তব্য, ‘‘ভিত্তিহীন অভিযোগ তুলে মানহানি অপরাধের সামিল। অভিযোগ পেলে নিশ্চয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে। ওই বৃদ্ধদের কারও ক্ষতি হলে বিপাকে পরবেন অভিযুক্তেরা।’’ মেট্রো রেলের ফেসবুক পেজে ভুয়ো পোস্ট নিয়ে বৃহস্পতিবার মেট্রোর তরফেও লালবাজারে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে বলে খবর।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন