• প্রদীপ্তকান্তি ঘোষ
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

বন্দিদের সংবাদ লিখবেন বন্দিরাই

Jail
প্রতীকী ছবি।

অন্তরালে জীবন কাটছে তাঁদের। আর এ বার ‘অন্তরালে’ই ঠাঁই পাবে তাঁদের লেখনী। তাই নিয়েই রবিবার, দমদম কেন্দ্রীয় সংশোধনাগারে প্রকাশিত হল বন্দিদের সংবাদপত্র, ‘অন্তরালে’।

দু’পাতার এই প্রথম সংখ্যায় রয়েছে প্যারোল, ই-মুলাকাতের খবর। সঙ্গে আছে বন্দিদের অভ্যন্তরীণ দ্বন্দ্বের কথাও। এ ছাড়া রয়েছে জেলের খেলার মাঠের খবরও। জেলের ভিতরের চারটি ছবিও ছাপা হয়েছে সংবাদপত্রে। জেল কর্তৃপক্ষ সংবাদপত্রের প্রথম সংখ্যার কয়েকটি প্রতিলিপি দেওয়ালে টাঙিয়ে দিয়েছেন। জানিয়েছেন, বন্দিদের জীবনের গল্প, ঘটনা-দুর্ঘটনা, এমনকী চাষবাসের খবরও থাকবে সংবাদপত্রে। পাশাপাশি, সংশোধনাগারে তাঁদের সুবিধা-অসুবিধা নিয়েও লেখার সুযোগ পাবেন বন্দিরা।

বন্দিদের যে কেউই ‘অন্তরালে’-র সংবাদদাতা হতে পারবেন বলে জানা গিয়েছে। কোনও খবর মুদ্রিত হওয়ার আগে তার সত্যতা যাচাই করবেন পাঁচ জন বন্দি। লেখার খুঁটিনাটিও দেখবেন তাঁরাই। সব শেষে যুগ্ম সম্পাদক সুকুমার এবং সফিকুল সব যাচাই করে তা প্রকাশের অনুমতি দেবেন। স্নাতক উত্তীর্ণ সম্পাদকদ্বয় খুনের অভিযোগে বন্দি রয়েছেন। আগামী ২৫ বৈশাখ থেকে দু’পাতার পরিবর্তে চার পাতার সংবাদপত্র প্রকাশ করার লক্ষ্য রয়েছে বন্দিদের।

এ দিন দমদম জেলের সুপার দেবাশিস চক্রবর্তী পত্রিকার আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন। ছিলেন জেলের ওয়েলফেয়ার অফিসার শুভদীপ মুখোপাধ্যায় এবং একটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের ম্যানেজিং ট্রাস্টি চৈতালি দাস। প্রসঙ্গত, তিহাড় জেলে ২০১৭-র শেষ দিকে কয়েক দিন সংবাদপত্র প্রকাশিত হলেও, এখন আর তা হয় না বলে দাবি দেবাশিসবাবুর। তবে মেদিনীপুর জেলে ২০১৭ সালের গোড়া থেকে ‘খোলা হাওয়া’ নামে একটি সংবাদপত্র প্রকাশিত হচ্ছে। দেবাশিসবাবুর বক্তব্য, ‘‘বন্দিদের লেখনীতে কোনও হস্তক্ষেপ করবে না কর্তৃপক্ষ। লেখা তো এক রকম অস্ত্রেরই কাজ করে। এখানেও স্বচ্ছতা বজায় থাকবে।’’

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন