• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

মন্ত্রীর আত্মীয়ের পরিচয় দিয়ে গ্রেফতার যুবক

fraud
আকাশ বিশ্বাস

মন্ত্রী অরূপ বিশ্বাসের ভাইপো হিসেবে মিথ্যা পরিচয় দিয়ে এক তরুণীকে প্রতারণার অভিযোগে এক যুবককে গ্রেফতার করল পুলিশ। তরুণীর অভিযোগ, ওই যুবক তাঁকে টলিউডে কাজ পাইয়ে দেওয়ার নাম করে এক জায়গায় ডেকে পাঠান। তাঁর দাবি, ওই যুবক নিজেকে অরূপবাবুর ভাই স্বরূপ বিশ্বাসের ছেলে বলে পরিচয় দেন। এমনকি, তরুণী ওই যুবকের বিরুদ্ধে কুপ্রস্তাব দেওয়ার অভিযোগও করেছেন। গোটা ঘটনার কথা তরুণী নিজের ফেসবুকে লিখেছিলেন। বিষয়টি জানতে পেরে মন্ত্রী অরূপবাবু নিজে সোমবার রাতে রিজেন্ট পার্ক থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। রাতেই টালিগঞ্জ থেকে আকাশ বিশ্বাস নামে ওই যুবককে গ্রেফতার করে পুলিশ। ধৃতের থেকে বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে তাঁর মোবাইল।

পুলিশ জানিয়েছে, বেলঘরিয়ার বাসিন্দা, মিতালি ভট্টাচার্য নামে ওই তরুণীর সঙ্গে মাস দুয়েক আগে ফেসবুকে আলাপ হয় আকাশের। মিতালি টেলিফোনে বলেন, “আমি অভিনয় করি। আকাশ নামে ওই যুবকের ফেসবুক পেজে একটি বিজ্ঞাপনের কাজের সুযোগ রয়েছে দেখে তাঁর সঙ্গে আমার ফেসবুকে কথা হয়। এক দিন উনি আমাকে দেখা করতে বলেন। আমি ওই বিজ্ঞাপনের শুটিংয়ের সঙ্গে মানিয়ে নিতে পারব বলে উনি জানান।” ওই তরুণীর অভিযোগ, “দেখা হওয়ার পরে উনি নিজেকে মন্ত্রী অরূপ বিশ্বাসের ভাই স্বরূপ বিশ্বাসের ছেলে বলে দাবি করলে আমার সন্দেহ হয়।” ওই যুবক তাঁকে কুপ্রস্তাবও দেন বলে মিতালির অভিযোগ। তিনি প্রতারণার শিকার হয়েছেন বুঝতে পারেন ওই তরুণী।

আকাশের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে প্রশাসনের কাছে আর্জি জানিয়ে গোটা ঘটনাটি দিন দুয়েক আগে নিজের ফেসবুক পেজে লেখেন মিতালি। পুরো ঘটনা জানার পরেই মন্ত্রী সোমবার আকাশের বিরুদ্ধে রিজেন্ট পার্ক থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। অরূপবাবুর ভাই স্বরূপবাবুও নিউ আলিপুর থানায় আকাশের বিরুদ্ধে প্রতারণার অভিযোগ দায়ের করেন। 

পুলিশ জানিয়েছে, স্নাতকোত্তর পাশ আকাশের বিরুদ্ধে আগেও পুলিশের কাছে তোলাবাজির অভিযোগ দায়ের হয়েছিল। আকাশ নিজের নামে ফেসবুকে সাতটি অ্যাকাউন্ট খুলে দীর্ঘদিন ধরে প্রতারণা করে চলেছেন। লালবাজারের এক কর্তা বলেন, 

“ধৃতকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। এই চক্রে আরও কেউ যুক্ত রয়েছে কি না খতিয়ে দেখা হচ্ছে।”

মঙ্গলবার ধৃতকে আলিপুর আদালতে তোলা হলে বিচারক তাঁকে তিন দিনের পুলিশ হেফাজতে রাখার নির্দেশ দেন।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন