দক্ষিণ কলকাতার একটি স্কুলে দশম শ্রেণির এক ছাত্রীর অপমৃত্যু নিয়ে জরুরি ভিত্তিতে মামলার শুনানির ব্যবস্থা করার জন্য সোমবার কলকাতা হাইকোর্টে আবেদন জানালেন আইনজীবী প্রিয়াঙ্কা তিব্রেওয়াল। ওই ছাত্রীর অস্বাভাবিক মৃত্যুর জন্য স্কুলের গাফিলতিকেই দায়ী করেন তিনি। বৃহস্পতিবার বিচারপতি প্রতীকপ্রকাশ বন্দোপাধ্যায়ের এজলাসে এই মামলার শুনানির রয়েছে। মামলার পরবর্তী শুনানিতে সংশ্লিষ্ট স্কুলের কর্তৃপক্ষ এবং পূর্বতন মামলায় আদালত নিযুক্ত আদালত-বান্ধবকে উপস্থিত থাকার জন্য নোটিস দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন বিচারপতি।

এ দিন উল্লেখ পর্বে বিচারপতি বন্দোপাধ্যায়ের এজলাসে সম্প্রতি ঘটে যাওয়া জিডি বিড়লার ঘটনার প্রসঙ্গ টেনে আদালতের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন আইনজীবী তিব্রেওয়াল। ওই স্কুলের নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিয়ে প্রশ্ন তোলার পাশাপাশি স্কুল-কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে গাফিলতির অভিযোগ তুলে ছাত্রীর অপমৃত্যুর নিরপেক্ষ তদন্তের আর্জি জানান তিনি। পাশাপাশি স্কুল-কর্তৃপক্ষকে কাঠগড়ায় তুলে তিনি ২০১৭ সালে ওই স্কুলেরই চার বছরের এক ছাত্রীর সঙ্গে ঘটে যাওয়া দুর্ভাগ্যজনক ঘটনার উল্লেখ করেন। আইনজীবীর অভিযোগ, সেই ক্ষেত্রেও স্কুল-কর্তৃপক্ষের গাফিলতি ছিল।

আইনজীবী তিব্রেওয়ালের এই বক্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে আদালত জরুরি ভিত্তিতে শুনানির বন্দোবস্ত করার আবেদন মঞ্জুর করেছে। আগামী বৃহস্পতিবার বেলা ২টোয় শুনানির দিনক্ষণ ধার্য করেন বিচারপতি।

২০১৭ সালে স্কুলে শিশুদের যৌন হেনস্থা রুখতে কড়া নির্দেশিকা জারি করেছিল কলকাতা হাইকোর্ট৷ সেই সময় রাজ্য স্তরে নোডাল বডি তৈরি করার জন্য রাজ্য সরকারকে নির্দেশ দিয়েছিলেন বিচারপতি নাদিরা পাথেরিয়া। সেই সঙ্গে প্রতিটি স্কুলে কমিটি গঠন করে কাউন্সিলর নিযুক্ত করারও নির্দেশ দেওয়া হয়৷ এ ছাড়াও হাইকোর্টের নির্দেশ ছিল, সরকার গঠিত কমিটিতে থাকবেন প্রধান শিক্ষক বা প্রধান শিক্ষিকা, স্কুলের শিক্ষক বা শিক্ষিকা, দু’জন অভিভাবক এবং বিশিষ্টজনেরা। স্কুলের মধ্যে শিশুর যৌন নিগ্রহ এবং অন্যান্য অভিযোগ উঠলে প্রথমে কমিটিকে জানাতে হবে৷ কমিটি সেই বিষয়ে নজরদারি চালাবে। স্কুলে কর্মী নিয়োগের ক্ষেত্রে প্রার্থীদের অতীত খতিয়ে দেখা হবে৷ সেই মামলায় চলতি মাসেই রিপোর্ট দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছিল আদালত। তার মধ্যেই ওই স্কুলে দশম শ্রেণির এক ছাত্রীর অস্বাভাবিক মৃত্যুতে স্কুল-কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে গাফিলতির অভিযোগ তুললেন কৌঁসুলি।

এবার শুধু খবর পড়া নয়, খবর দেখাও।সাবস্ক্রাইব করুনআমাদেরYouTube Channel - এ।