• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

মহিলাকে খুনের কিনারা, ধৃত ছেলে

Mamata
মমতা আগরওয়াল

সে ভাবে নির্ভরযোগ্য কোনও সূত্র ছিল না। প্রাথমিক ভাবে তদন্তকারীরা দুর্ঘটনা বলে মনে করেছিলেন। কিন্তু ছেলের গালে আঁচড়ানোর দাগ দেখে সন্দেহ হয়েছিল তাঁদের। ওই দাগের সূত্র ধরেই ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে রিজেন্ট পার্কে গৃহবধূ হত্যা রহস্যের কিনারা করল কলকাতা পুলিশ। মমতা আগরওয়াল নামে ওই মহিলাকে খুনের অভিযোগে শুক্রবার রাতে তাঁর ছেলে আয়ুষ আগরওয়ালকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

পুলিশ জেনেছে, আয়ুষ প্রায়ই টাকা ওড়াত। এ নিয়ে মমতা তাকে বারণ করেছিলেন। সম্প্রতি আরও টাকার প্রয়োজন হওয়ায় আয়ুষ তার মোটরবাইক বিক্রি করবে ঠিক করে। তদন্তকারীদের দাবি, এ দিন টানা জিজ্ঞাসাবাদে ভেঙে পড়ে আয়ুষ জানায়, মা তাকে মোটরবাইক বিক্রির কিছু টাকা বাড়ির জন্য দিতে বলেছিলেন। তাতেই ক্ষিপ্ত হয়ে সে গলা টিপে মাকে খুন করে। তার পরে বাড়ি থেকে বেরিয়ে যায়। এত কিছুর পরেও নির্বিকার ছিল ওই যুবক।

গত বুধবার রিজেন্ট পার্কের বাড়ি থেকে উদ্ধার হয়েছিল মমতার দেহ। তাঁর শ্বশুর লক্ষ্মীনারায়ণ আগরওয়াল পুলিশকে জানিয়েছিলেন, ওই দিন বিকেলে বৌমাকে ডেকেও সাড়া না পেয়ে দরজা খুলে ঘরে ঢোকেন তিনি। দেখা যায়, বিছানায় চিৎ হয়ে পড়ে আছেন মমতা। 

নাক-মুখ দিয়ে গ্যাঁজলা বেরোচ্ছে। গলায় ও ডান গালে কাটা দাগ। পরিবার সূত্রে দাবি করা হয়েছে, ওই দিন সকালে আয়ুষকে নিয়ে কাজে বেরিয়ে গিয়েছিলেন মমতার স্বামী সুরেশ।

পুলিশ জানিয়েছে, অস্টিয়ো-আর্থারাইটিসে ভুগছিলেন মমতা। সম্প্রতি তাঁর হাঁটুর অস্ত্রোপচার হয়। তাঁর থাইরয়েডের সমস্যা ছিল। তদন্তকারীরা জানিয়েছেন, প্রাথমিক ভাবে তাঁরা এটি দুর্ঘটনা বলে মনে করেছিলেন। কিন্তু যে ভাবে ওই মহিলার দেহ পড়েছিল, তা দেখে এবং মমতার ছেলের গালে আঁচড়ানোর দাগ দেখে সন্দেহ হয়। তার ভিত্তিতেই আয়ুষকে জেরা শুরু করেন তাঁরা।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন