• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

শান্তিপুর থেকে উদ্ধার নিখোঁজ তরুণ

shantipur
ফিরিয়ে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে শুভাশিস সরকারকে (ডান দিকে)। মঙ্গলবার, শান্তিপুরে। নিজস্ব চিত্র

বাড়ি থেকে বেরিয়ে কোনও ভাবে শান্তিপুর চলে এসেছিলেন কসবার বাসিন্দা, বছর একুশের এক তরুণ। তাঁকে রাস্তায় উদ্দেশ্যহীন ভাবে ঘুরতে দেখে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করেন স্থানীয় কয়েক জন বাসিন্দা। প্রাথমিক ভাবে নাম-ঠিকানা বলতে না পারায় ওই তরুণকে নিয়ে যাওয়া হয় শান্তিপুর থানায়। পরে তিনি জানান, তাঁর বাড়ি কসবায়। কসবা থানার পুলিশের সঙ্গে যোগাযোগ করে মঙ্গলবার শুভাশিস সরকার নামে ওই তরুণকে বাড়ি ফিরিয়ে দেওয়া হয়েছে।

কসবার নস্করহাট মধ্যপাড়ার বাসিন্দা শুভাশিস নিখোঁজ হয়েছিলেন গত ১৯ সেপ্টেম্বর। তাঁর বাবা প্রবোধ সরকার একটি পানের দোকান চালান। শুভাশিস তাঁর ছোট ছেলে। প্রবোধবাবুর বড় ছেলের আনাজের ব্যবসা। ওই পরিবার সূত্রে জানা গিয়েছে, শুভাশিসের সামান্য মানসিক সমস্যা আছে। তাঁর মা মারা গিয়েছেন বহু দিন আগে। বাবা এবং দাদা দোকানে চলে গেলে ওই তরুণ বাড়িতে একাই থাকতেন। দিন কয়েক আগে বাড়ি থেকে বেরিয়ে তিনি নিখোঁজ হয়ে যান। তবে কী ভাবে শুভাশিস শান্তিপুরে এসে পৌঁছলেন, তা জানাতে পারেননি।

ওই তরুণের পরিবার জানিয়েছে, শান্তিপুরের বেজপাড়া এলাকায় শুভাশিসের পিসির বাড়ি। যদিও সেই ঠিকানা জানেন না তিনি। শান্তিপুরের বাসিন্দা সুব্রত মৈত্র, বিশ্বজিৎ রায়েরা বলছেন, “আমরা সবাই মিলে ওঁর ঠিকানা খোঁজার চেষ্টা করে গিয়েছি কয়েক দিন ধরে। ছেলেটা পরিবার ফিরে পাচ্ছে, এটা ভেবেই ভাল লাগছে।”

এ দিন সকালে উপযুক্ত নথিপত্র এনে শান্তিপুর থেকে ছেলেকে ফিরিয়ে নিয়ে যান প্রবোধবাবু। তিনি বলেন, “ছেলে হঠাৎ করেই বাড়ি থেকে বেরিয়ে পড়েছিল। ওর কিছু মানসিক সমস্যা রয়েছে। শান্তিপুর থানার পুলিশ আর এলাকার বাসিন্দারা খুব সাহায্য করেছেন। তাঁদের কাছে
আমি কৃতজ্ঞ।”

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন