হিন্দি বিভাগে পড়ুয়া পাচ্ছে না প্রেসিডেন্সি বিশ্ববিদ্যালয়। তাই ওই বিষয়ে আসন কমিয়ে ‘ইন্ডিয়ান কম্প্যারেটিভ লিটারেচার’ বিভাগ খোলা হতে পারে বলে মঙ্গলবার এক সাংবাদিক বৈঠকে জানান উপাচার্য অনুরাধা লোহিয়া। পরিচালন সমিতির বৈঠকে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হবে। হিন্দিতে ৪৮টি আসনের অধিকাংশই কয়েক বছর ধরে ফাঁকা থাকছে। সংরক্ষিত আসন অসংরক্ষিত করার পরেও তা পূরণ করা যায়নি। স্কুল অব পাবলিক পলিসি-র পঠনপাঠন শীঘ্রই শুরু করতে চায় বিশ্ববিদ্যালয়।

উপাচার্য জানান, ১১ সেপ্টেম্বর প্রেসিডেন্সির সমাবর্তনে অভিনেতা সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়কে সাম্মানিক ডিলিট এবং বিজ্ঞানী সি এন আর রাও-কে সাম্মানিক ডিএসসি দেওয়া হবে। ২০১৪ সালে প্রেসিডেন্সি বিশ্ববিদ্যালয়ে পিএইচ ডি বিভাগের যাত্রা শুরু হয়েছিল। এ বছরেই প্রথম ওই ডিগ্রি পাবেন চার জন।

হিন্দু হস্টেল নিয়ে পড়ুয়াদের আন্দোলন প্রসঙ্গে লোহিয়ার বক্তব্য, প্রেসিডেন্সির পড়ুয়ারা যথেষ্ট পরিণত। বাস্তব অবস্থাটা তাঁরা নিশ্চয়ই বুঝবেন। বাস্তব পরিস্থিতি বিচার করেই পড়ুয়াদের রাজারহাটের হস্টেলে চলে যাওয়া উচিত।