• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

নয়া লেভেল ক্রসিং দিয়ে শুরু গাড়ি চলাচল

level crossing
ব্যবস্থা: যান চলাচলের জন্য খুলে দেওয়া হল চিৎপুর লেভেল ক্রসিং। সোমবার। ছবি: বিশ্বনাথ বণিক

বাগবাজার এবং কাশীপুরের মধ্যে সংযোগকারী টালা সেতুর বিকল্প চিৎপুর রেল ইয়ার্ডের লেভেল ক্রসিং দিয়ে গাড়ি চলাচল শুরু হল। সোমবার, দোলের দিন সকাল থেকে বাস, লরি-সহ বিভিন্ন গাড়ি বাগবাজারের দিক থেকে প্রাণনাথ মুখার্জি রোড হয়ে ওই লেভেল ক্রসিং পার করে কাশীপুর রোডের দিকে যায়। 

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, পণ্যবাহী লরি ওই লেভেল ক্রসিং দিয়ে চলাচল করলেও এখনই ব্যবহার করা হচ্ছে না গঙ্গার তীরবর্তী রাস্তা— চিৎপুর স্ট্র্যান্ড ব্যাঙ্ক রোড এবং খগেন চ্যাটার্জি রোড। ওই রাস্তার বেশির ভাগ কাজ শেষ হয়ে গেলেও কিছু কিছু জায়গায় সম্প্রসারণের কাজ এখনও বাকি রয়ে গিয়েছে। সেই কাজ শেষ হলে পণ্যবাহী লরিকেও লেভেল ক্রসিং পার করিয়ে, ব্রজদয়াল শাহ রোড হয়ে চিৎপুর স্ট্র্যান্ড ব্যাঙ্ক রোড এবং খগেন চ্যাটার্জি রোড হয়ে বি টি রোডে পাঠানো হবে। তাতে কাশীপুর রোডের উপরে চাপ কমবে বলেই অনুমান ট্র্যাফিক পুলিশের কর্তাদের। ছোট গাড়ি এবং বাস চলাচল করার মূল রাস্তা হয়ে ওঠার জন্য বর্তমানে কাশীপুর রোডের উপরে চাপ বেশি রয়েছে। সেই চাপ কমাতে পণ্যবাহী গাড়ির জন্য দ্রুত চিৎপুর স্ট্র্যান্ড ব্যাঙ্ক রোড চালু করতে চাইছে লালবাজার। 

পুলিশ জানিয়েছে, এ দিন থেকে চিৎপুর লকগেট উড়ালপুল দিয়ে গাড়ি বি টি রোড থেকে বাগবাজারের দিকে গিয়েছে। টালা সেতু বন্ধ হয়ে যাওয়ার পরে, গত দু’মাসের বেশি সময় ধরে ওই উড়ালপুল দিয়ে বি টি রোডের দিকে গাড়ি যাচ্ছিল। একই ভাবে কাশীপুর রোড দিয়ে বরাহনগরের দিকে গাড়ি পাঠানো হয়েছে। এক পুলিশ কর্তার কথায়, ‘‘এ দিন সব কিছুই সাফল্যের সঙ্গে হয়েছে। তবে বুধবার থেকে কাজের দিন শুরু হলে গাড়ির চাপ বাড়বে। সে দিনই বোঝা যাবে, নতুন এই ব্যবস্থা কতটা কার্যকর হয়েছে।’’ 

আরও পড়ুন: শান্তিনিকেতনের বসন্তোৎসব অসুন্দরের মোকাবিলার উৎসব

পুলিশ সূত্রের খবর, রাত ১২টার পরে চিৎপুর লক উড়ালপুল দিয়ে গাড়ি চলাচল বন্ধ রাখা হবে। ওই সময়ে লেভেল ক্রসিংয়ের নতুন রাস্তা দিয়ে দু’দিকের গাড়ি চলাচল করবে। নির্বিঘ্নে গাড়ি চলাচলের জন্য ওই এলাকায় অতিরিক্ত ট্র্যাফিক পুলিশ মোতায়েন করা হচ্ছে। পাশাপাশি, লেভেল ক্রসিংয়ে চক্ররেলের ওভারহেডের তার থাকায় নির্দিষ্ট উচ্চতার বেশি পণ্যবাহী গাড়িকে ওই রাস্তা দিয়ে যেতে দেওয়া হবে না বলে পুলিশ জানিয়েছে।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন