ধর্মতলা থেকে ডালহৌসির দিকে গাড়ি চালিয়ে যাচ্ছিলেন এক ব্যক্তি। গাছের আড়ালে ট্র্যাফিক সিগন্যাল ঢেকে যাওয়ায় আচমকা রাজভবনের কাছে গাড়ি দাঁড় করান তিনি। কর্তব্যরত ট্র্যাফিক কর্মী তাঁকে জানান, সিগন্যাল খোলা। তা শুনে গাড়ি চালিয়ে বেরিয়ে যান চালক। মোটরবাইকে টালিগঞ্জ থেকে রাসবিহারী যাচ্ছিলেন যুবক। চারু মার্কেটের কাছে ক্রসিং পেরোতেই কর্তব্যরত পুলিশ সিগন্যাল অমান্য করায় তাঁর মোটরবাইক থামায়। যুবকের দাবি, সামনে বাস থাকায় সিগন্যাল যে লাল হয়েছে, তা তিনি দেখতে পাননি। এমন হরেক অভিযোগের কথা মাথায় রেখেই এ বার লালবাজার ট্র্যাফিক সিগন্যাল পোস্টে বদল আনতে চলেছে।

লালবাজার সূত্রের খবর, সিগন্যাল পোস্টে লাল, হলুদ, সবুজ বাতির বদলে ‘টি’ আকারের পোস্ট বসাতে চাইছে ট্র্যাফিক পুলিশ। নতুন এই পোস্ট জুড়ে লাল, হলুদ এবং সুবজ এলইডি বাতি লাগানো রয়েছে। যা দূর থেকেই চালকের দেখা সম্ভব বলে দাবি পুলিশের। গত সপ্তাহে পরীক্ষামূলক ভাবে দেশপ্রিয় পার্কের মোড়ে তেমনই পোস্ট বসানো হয়েছে। আগামী সপ্তাহের মধ্যে আরও দশ জায়গায় ওই পোস্ট বসবে।

নতুন ব্যবস্থায় গোটা পোস্ট এলইডি বাতি দিয়ে ঢাকা থাকায় নীচ থেকে উপর পর্যন্ত সেই আলো জ্বলবে। ট্র্যাফিক পুলিশের এক কর্তা বলেন, ‘‘চালক এবং শহরবাসীর মতামতের উপরে নির্ভর করছে ওই ব্যবস্থা গোটা শহরে চালু হবে কি না। এ জন্য ট্র্যাফিক পুলিশের ফেসবুক পেজে মতামত জানাতে পারবেন নাগরিকেরা।’’