• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

ভবানীপুরে বাড়ির নালায় প্রৌঢ়ার দেহ, পিছনে প্রোমোটার চক্র!

bhawanipur
সুনন্দাদেবী

শহরে ফের নিঃসঙ্গ বৃদ্ধার রহস্যজনক মৃত্যু। সোমবার সকালে দক্ষিণ কলকাতার ভবানীপুরে বকুলবাগান রোডের একটি বাড়ির ভিতরের নালা থেকে উদ্ধার হয় সুনন্দা গঙ্গোপাধ্যায় নামে এক প্রৌঢ়ার দেহ। প্রাথমিক তদন্তে পুলিশের অনুমান, তাঁকে খুন করা হয়েছে।

পুলিশ ও প্রতিবেশীরা জানিয়েছেন, ওই বাড়িতে একাই থাকতেন বছর ষাটের সুনন্দাদেবী। দীর্ঘদিন ধরেই কয়েক জন প্রোমোটার তাঁকে বাড়ি থেকে উঠে যাওয়ার জন্য হুমকি দিচ্ছিল বলে অভিযোগ। তাঁকে বাড়ি থেকে উচ্ছেদ করে সেখানে বহুতল তৈরি করার পরিকল্পনা ছিল তাদের। বছর দুয়েক আগে হিমাংশু সাহা নামে এক প্রোমাটার লোক দিয়ে সুনন্দাদেবীকে অপহরণ করিয়েছিলেন বলেও অভিযোগ এলাকাবাসীর। এর পর তাঁকে কিছু দিন জোর করে মানসিক হাসপাতালেও রাখা হয় বেশ কিছু দিন।  

পুলিশ সূত্রে খবর, সুনন্দাদেবীর স্বামী এবং ছেলে তাঁর সঙ্গে থাকেন না। এই বাড়িতে তিনি একাই থাকতেন। দুঃস্থ শিশুদের বাড়িতে পড়াতেন। তাদের মধ্যে ভুতু সিংহ নামে একটি বাচ্চা তার বাবা-মায়ের সঙ্গে সুনন্দাদেবীর বাড়ির রকেই রাত কাটাত। সোমবার সকালে ভুতুরা ঘুম থেকে উঠে দেখে, বাড়ির সদর দরজা হাট করে খোলা। দরজা খোলা দেখে ভুতু বাড়ির ভিতর ঢুকে দেখে নালার মধ্যে ওই প্রৌঢ়ার দেহ পড়ে রয়েছে। চিৎকার করে প্রতিবেশীদের ডেকে নিয়ে আসার পর পুলিশের কাছে খবর যায়। ঘটনাস্থলে যান কলকাতা পুলিশের উচ্চপদস্থ আধিকারিকরা। পুলিশ জানিয়েছে, প্রাথমিক ভাবে মনে করা হচ্ছে সম্পত্তির জন্য সুনন্দাদেবীকে খুন করা হয়েছে। গতকাল দুপুর থেকে এ দিন ভোর পর্যন্ত বাড়ির দরজা খোলা ছিল। তবে কি খুনের পর দরজা খুলে পালিয়ে যায় খুনি? সবটাই খতিয়ে দেখছে পুলিশ।

আরও পড়ুন:মাঝরাতে ঘরে ঢুকে ঘুমন্ত অবস্থায় আক্রমণ, ১ শিশু-সহ গুরুতর জখম ৫

 

 

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন