• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

মেলেনি ঋণ নিয়ে কেনা জিনিস, গ্রেফতার ১

1
প্রতীকী চিত্র।

Advertisement

ঋণ নিয়ে বিভিন্ন সামগ্রী কিনেছিলেন বেশ কয়েক জন গ্রাহক। কিস্তিতে ঋণের টাকা শোধ করার কথা ছিল তাঁদের। কিন্তু বেশ কয়েক জন গ্রাহক জানান, তাঁরা কিস্তির টাকা দেবেন না। খোঁজখবর নিতে গিয়ে ঋণ প্রদানকারী সংস্থা জানতে পারে, ঋণ নিয়ে কেনা জিনিসপত্র ওই গ্রাহকদের কাছে  আদৌ পৌঁছয়নি।

বিষয়টি নিয়ে ওই সংস্থা বিধাননগর পুলিশের দ্বারস্থ হয়। পুলিশ তদন্তে নেমে বৃহস্পতিবার কলকাতা থেকে ওই সংস্থার এক প্রাক্তন কর্মীকে গ্রেফতার করেছে। ধৃতের নাম অরিন্দমকুমার মিত্র (৩০)। ধৃতকে শুক্রবার বিধাননগর আদালতে তোলা হলে তিন দিনের পুলিশি হেফাজতের নির্দেশ হয়।
প্রাথমিক তদন্তে পুলিশ জানতে পারে, ওই সংস্থা ২০১৯ সালের এপ্রিল থেকে অগস্ট মাসের মধ্যে একাধিক গ্রাহকের নামে মোট সাড়ে তিন লক্ষ টাকার ঋণ অনুমোদন করেছিল। সেই ঋণ নিয়ে ওই গ্রাহকেরা বিভিন্ন সামগ্রী কেনার জন্য বুকিং করেছিলেন। সংস্থার মাধ্যমেই তাঁদের ঠিকানায় এর পরে ওই সামগ্রী পৌঁছে যাওয়ার কথা ছিল। কিন্তু সমস্যা দেখা দেয় ঋণ আদায়ের সময়ে। কয়েক জন গ্রাহক জানান, যে জিনিস কেনার জন্য তাঁরা বুকিং করেছিলেন, সেগুলি তাঁদের বাড়িতে পৌঁছয়নি। তাই তাঁরা ঋণের কিস্তি দেবেন না।

পুলিশ জানতে পারে, ঋণ দেওয়ার কাজে যুক্ত ছিলেন অরিন্দম। তাঁকে জিজ্ঞাসাবাদে অনেক অসঙ্গতি মেলে। এর পরেই গ্রেফতার করা হয় তাঁকে। প্রাথমিক ভাবে পুলিশের অনুমান, বুকিং করা জিনিসপত্র গ্রাহকদের ঠিকানায় পৌঁছে দেওয়ার বদলে অন্য জায়গায় নিয়ে যাওয়া হয়েছে। বাজারে বিক্রিও করে দেওয়া হয়ে থাকতে পারে বলে সন্দেহ পুলিশের। পুলিশ সূত্রের খবর, ঘটনায় একটি চক্র জড়িত বলে তদন্তে একাধিক সূত্র মিলেছে। ধৃতকে জিজ্ঞাসাবাদ করে তা যাচাই করে দেখা হবে। 

সবাই যা পড়ছেন

Advertisement

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন