মত্ত অবস্থায় বন্দুক নিয়ে হুমকি দেওয়ার অভিযোগে এক নিরাপত্তারক্ষীকে গ্রেফতার করল পুলিশ। শনিবার সন্ধ্যায় ঘটনাটি ঘটেছে নরেন্দ্রপুর থানার কামালগাজি এলাকার একটি আবাসনে। ধৃতের নাম মনোজ রাউত। ধৃতের বিরুদ্ধে খুনের চেষ্টার অভিযোগের ধারা দেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন তদন্তকারী অফিসারেরা।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রের খবর, মনোজ ওই আবাসনেই কাজ করেন। গত মাসের বেতন পেতে দেরি হচ্ছিল বলে কয়েক দিন ধরেই সহকর্মীদের কাছে ক্ষোভ প্রকাশ করেছিলেন মনোজ। শনিবার বিকেলে মত্ত অবস্থায় নিজের কাছে থাকা বন্দুক নিয়ে আবাসনের নিরাপত্তারক্ষীদের অফিসে হাজির হন মনোজ। অভিযোগ, বেতন দেওয়ার জন্য নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা শিবাশিস মাইতির মাথায় বন্দুক ঠেকিয়ে শাসানি দিতে থাকেন তিনি। শিবাশিসবাবু বন্দুকটি সরিয়ে দিয়ে চিৎকার শুরু করলে আশপাশ থেকে কয়েক জন নিরাপত্তারক্ষী ছুটে এসে মনোজকে ধরে ফেলেন। তাঁর হাত থেকে বন্দুক ছিনিয়ে নেন অন্য নিরাপত্তারক্ষীরা। পরে নরেন্দ্রপুর থানায় খবর দেওয়া হয়। পুলিশ এসে মনোজকে গ্রেফতার করে। শিবাশিসবাবু বলেন, ‘‘বেতন দিতে দেরি হচ্ছিল। শুক্রবারও মত্ত অবস্থায় এসে বেতনের টাকা চান মনোজ। আমাদের বেতন সদর দফতর থেকে দেওয়া হয়। সেখানে যাওয়ার জন্য বলা হয়েছিল। কিন্তু সেখানে না গিয়ে শনিবার ফের আবাসনের অফিসে মত্ত অবস্থায় এসে বন্দুক নিয়ে হুমকি দেন মনোজ।’’ পুলিশ সূত্রের খবর, বন্দুকটি ওই আবাসনেরই নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা সংস্থার তরফে মনোজকে দেওয়া হয়েছিল। বন্দুকটি বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে।