• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

অটো রাখতে নিষেধ করায় ‘মারধর’

beaten up
—প্রতীকী ছবি।

Advertisement

হোটেলের সামনে অটো রাখতে নিষেধ করায় মালিককে মারধরের অভিযোগ উঠল একদল চালকের বিরুদ্ধে। মঙ্গলবার বিকেলে, বারুইপুর থানার চম্পাহাটির রেলগেট এলাকায়।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রের খবর, চম্পাহাটি রেলগেট লাগোয়া একটি হোটেলের সামনে অটো রেখে চলে গিয়েছিলেন বারুইপুর-চম্পাহাটি ৪ নম্বর রুটের ওই চালক। তিনি ফিরে এলে অটোটি সরিয়ে নিতে বলার পাশাপাশি সেখানে আর কখনও অটো দাঁড় করিয়ে না রাখার অনুরোধ করেন হোটেল-মালিক। পরে নাগাদ ৩৫-৪০ জনের একটি দল নিয়ে ফিরে আসেন চালক। অভিযোগ, গৌতম নস্কর নামে ওই হোটেল-মালিককে মাটিতে ফেলে বেধড়ক মারধর করা হয়। তাঁকে বাঁচাতে এলে প্রদীপ ঘোষ নামে এক কর্মচারীকেও মারধর করা হয়। হোটেলের ক্যাশবাক্স থেকে ১৮ হাজার টাকা লুট করা হয়েছে বলেও অভিযোগ।

পুলিশ জানায়, ঘটনার পরে স্থানীয় স্বাস্থ্যকেন্দ্রে নিয়ে গেলে গৌতমবাবুর মাথায় আটটি সেলাই করতে হয়। মঙ্গলবার রাতে বারুইপুর থানায় ওই অটোর নম্বর জমা দিয়ে একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন তিনি। চম্পাহাটি ব্যবসায়ী সমিতির সম্পাদক অপূর্ব ঘোষও দোষীদের শাস্তি দাবি করে পুলিশের কাছে অভিযোগ দায়ের করেছেন। বারুইপুর জেলা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ইন্দ্রজিৎ বসু বলেন, ‘‘মারধর ও লুটপাটের ধারায় মামলা করা হয়েছে। ওই অটোচালকের খোঁজ করা হচ্ছে।’’ বারুইপুর ব্লক আইএনটিটিইউসির সম্পাদক বিভাস সর্দার বলেন, ‘‘ঘটনার নিন্দা করছি। পুলিশ আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহণ করুক।’’

সবাই যা পড়ছেন

Advertisement

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন