জুয়ার আসর থেকে গ্রেফতার আরসালান রেস্তরাঁ চেনের মালিক আখতার পারভেজ। শনিবার গভীর রাতে মধ্য কলকাতার একাধিক রেস্তরাঁ এবং ক্লাবে হানা দেয় কলকাতা পুলিশের গুণ্ডা দমন শাখার আধিকারিকরা। সেই অভিযানেই পার্ক সার্কাসের একটি পানশালা থেকে গ্রেফতার করা হয় আখতার পারভেজকে। উদ্ধার হয়েছে জুয়ার বোর্ডের প্রায় লাখ খানেক টাকা। এ ছাড়া অন্যান্য ক্লাবে হানা দিয়েও আরও  ১৩ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলে পুলিশ সূত্রে খবর।

পানশালায় জুয়ার আসরের বিরুদ্ধে শনিবার বিশেষ অভিযান চালান কলকাতা পুলিশের গুন্ডাদমন শাখা। শেক্সপিয়র সরণী এবং বেনিয়াপুকুর থানা এলাকার বেশ কয়েকটি পানশালা এবং ক্লাবে হানা দেন গুন্ডাদমন শাখার অফিসারেরা। পার্ক সার্কাস এলাকার একটি পানশালায় জুয়ার আসর বসানোর অভিযোগে গ্রেফতার করা হয় আখতার পারভেজকে। অভিযানের সময়ও জুয়ার আসর চলছিল বলে পুলিশ সূত্রে খবর। আখতার পারভেজই ওই আসর বসিয়েছিলেন বলেও অভিযানকারী দলের একটি সূত্রে খবর। জুয়ার বোর্ডের এক লক্ষেরও বেশি নগদ টাকা ও অন্যান্য কিছু সামগ্রী বাজেয়াপ্ত করে পুলিশ।

অভিযান চালানো বাকি রেস্তরাঁ ও পানশালাগুলির মধ্যেও কয়েকটি জুয়ার আসর চলছিল। সে সব জায়গা থেকে ১০ জনকে গ্রেফতারের পাশাপাশি জুয়ার বোর্ডের টাকাও উদ্ধার করেছে পুলিশ। সেই সব টাকার হিসেব এখনও সম্পূর্ণ হয়নি বলে পুলিশের একটি সূত্রে জানা গিয়েছে।

আরও পড়ুন: বাগবাজার ঘাটে ‘শহিদ’ তর্পণ নাড্ডার, জঙ্গলরাজ-সরকারি সন্ত্রাসের অভিযোগ তুলে তীব্র আক্রমণ

আরও পডু়ন: রাষ্ট্রপুঞ্জে পাকিস্তানকে যোগ্য জবাব দেওয়া এই বিদিশা মৈত্র কে?

গত মাসেই এই আরসালান রেস্তরাঁর মালিকের পরিবার খবরের শিরোনামে উঠে এসেছিল। ১৭ অগস্ট শেক্সপিয়র সরণী থানার সামনে দাঁড়িয়ে থাকা একটি মার্সিডিজ গাড়িতে ধাক্কা মারে আরসালানের মালিক আখতার পারভেজের ছোট ছেলে রাঘিবের একটি জাগুয়ার গাড়ি। ঘটনায় দুই বাংলাদেশি নাগরিকের মৃত্যু হয়। ওই ঘটনায় আখতার পারভেজের দুই ছেলে আরসালান ও রাঘিব এবং তাঁর শ্যালক তথা আরসালান-রাঘিবের মামা মহম্মদ হামজা গ্রেফতার হয়েছেন। তাঁরা জেল হেফাজতে রয়েছেন। এ বার গ্রেফতার হলেন আরসালান-রাঘিবের বাবা আখতার পারভেজও।