• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

প্রেসিডেন্সিতে বসবে অভিজিৎ ও অমর্ত্যের মুখ

Presidency University
সম্মান: এই দেওয়ালেই যুক্ত হবে অভিজিৎবাবুর নাম। নিজস্ব চিত্র

Advertisement

প্রেসিডেন্সি বিশ্ববিদ্যালয়ের দেওয়ালে বসানো হবে সদ্য নোবেলজয়ী অর্থনীতিবিদ অভিজিৎ বিনায়ক বন্দ্যোপাধ্যায়ের মুখাবয়ব। বসানো হবে আর এক নোবেলজয়ী প্রাক্তনী অমর্ত্য সেনের মুখাবয়বও। এর সঙ্গে প্রেসিডেন্সির ‘ওয়াল অব ফেম’-এও যুক্ত হবে অভিজিতের নাম। সেই সঙ্গে এ বারের অর্থনীতিতে নোবেলজয়ী তিন জনকেই সাম্মানিক ডিলিট দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

অমর্ত্য এবং অভিজিৎ, দু’জনই আগেকার প্রেসিডেন্সি কলেজের অর্থনীতি বিভাগের প্রাক্তন পড়ুয়া। বৃহস্পতিবার বিশ্ববিদ্যালয়ের ‘প্ল্যানিং অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট কমিটি’র বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয়েছে, মূল ভবনের একটি দেওয়াল চিহ্নিত করে সেখানেই দুই নোবেলজয়ীর মুখাবয়ব বসানো হবে। রেজিস্ট্রার দেবজ্যোতি কোনার এ দিন জানান, বৈঠকে আরও ঠিক হয়েছে, প্রেসিডেন্সির ওয়াল অব ফেমে অমর্ত্য সেন-সহ বিশিষ্ট প্রাক্তনীদের নামের পাশে যোগ হবে অভিজিতের নামও। প্রেসিডেন্সির অর্থনীতি বিভাগের করিডর জুড়ে ওই বিভাগের বিশিষ্টদের ছবি-সহ পরিচয় লাগানো আছে। সেখানে রয়েছেন অভিজিৎ-ও। তাঁর পরিচয় আবার নতুন করে লেখা হবে। যোগ করা হবে নোবেল জয়ের কথা। এই কাজগুলি খুব দ্রুত শুরু হবে বলে জানিয়েছেন রেজিস্ট্রার।

এ সবের পাশাপাশি ঠিক হয়েছে, বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে বিশেষ নকশার একটি অভিনন্দনপত্র যত দ্রুত সম্ভব পাঠানো হবে নোবেলজয়ীর কাছে। চলতি মাসের শেষের দিকে অভিজিতের দেশে আসার কথা। কিন্তু সেই সময়ে তিনি প্রেসিডেন্সিতে আসতে পারবেন না বলেই খবর। অভিজিৎ যখন সময় দিতে পারবেন, তখনই বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে তাঁকে সংবর্ধনা জানানো হবে বলে জানান রেজিস্ট্রার।

এ বছর অর্থনীতিতে অভিজিতের সঙ্গেই নোবেল জিতেছেন তাঁর স্ত্রী এস্থার দুফলো ও মাইকেল ক্রেমার। তিন জনকেই সমাবর্তনে সাম্মানিক ডিলিট দিতে চান প্রেসিডেন্সি কর্তৃপক্ষ। এ নিয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্তের জন্য পরবর্তী গভর্নিং বোর্ডের বৈঠকে আলোচনা করা হবে।

সবাই যা পড়ছেন

Advertisement

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন