পঁচিশ দিনের এক শিশুপুত্রকে খুনের চেষ্টার অভিযোগে এক কিশোরীকে ধরল পুলিশ। পঞ্চসায়র থানার অধীনে শহিদ কলোনি এলাকার ঘটনা।

পুলিশ জানিয়েছে, দক্ষিণ ২৪ পরগনার মথুরাপুরের বাসিন্দা পিঙ্কি বিবি একটি অভিযোগ দায়ের করেন। তাতে তিনি জানান, তাঁর বড় মেয়ে বিবি শেখের কাছে তাঁর মা থাকেন। মা অসুস্থ হওয়ায় পিঙ্কি মথুরাপুর থেকে শহিদ কলোনিতে বড় মেয়ের বাড়িতে যান। গত ১১ তারিখ সকাল সাড়ে ১১ টা নাগাদ তিনি দেখেন বড় মেয়ের জা তাঁর পঁচিশ দিনের নাতিকে বালিশ চাপা দিয়ে খুনের চেষ্টা করছে। এর পরেই তিনি পঞ্চসায়র থানায় অভিযোগ দায়ের করলে পুলিশ ওই শিশুপুত্রের কাকিমাকে আটক করেছে।

পুলিশ জানিয়েছে, আটক অভিযুক্তের বয়স ১৬ বছর হওয়ায় তাকে জুভেনাইল জাস্টিস বোর্ডের সামনে হাজির করানোর কথা। কিন্তু সোমবার ছুটি থাকায় আলিপুর আদালতে তাকে নিয়ে গেলে এক দিনের জন্য ওই কিশোরীকে লিলুয়া হোমে রাখার নির্দেশ দিয়েছে আদালত। আজ, মঙ্গলবার তাকে কলকাতা জুভেনাইল জাস্টিস বোর্ডের সামনে হাজির করানো হবে। কিন্তু কেন ওই কিশোরী নিজের জায়ের ছেলেকে খুন করতে গিয়েছিল?

প্রাথমিক তদন্তে পুলিশ জানিয়েছে, অভিযোগকারিণী পিঙ্কি বিবির বড় মেয়ের সঙ্গে অভিযুক্ত কিশোরীর পারিবারিক গোলমাল লেগে থাকে। ঘটনার দিন বড় জা বালতি দিয়ে তার মাথায় মারে। তাই অভিযুক্ত জায়ের ছেলেকে মারতে চেয়েছিল।