• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

কোয়ার্টার্স ভাঙার নির্দেশে বিক্ষোভ বাসিন্দাদের

Protest
রেলের পরিদর্শক বাহিনীর বিরুদ্ধে বিক্ষোভ দেখাচ্ছেন বিএনআর কোয়ার্টার্সের বাসিন্দারা। মঙ্গলবার, টিকিয়াপাড়ায়। ছবি: দীপঙ্কর মজুমদার

Advertisement

রেলের তরফে জীর্ণ কোয়ার্টার্স ভেঙে ফেলার নির্দেশ জারি হওয়ায় বিক্ষোভ দেখালেন সেখানকার বাসিন্দারা। মঙ্গলবার সকালে, হাওড়ার টিকিয়াপাড়ায়। বর্ধমান স্টেশনের একটি ভবন ভেঙে পড়ার পরে রেলের তরফে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে, রেলের বিভিন্ন ভগ্নপ্রায় বাড়ি বা কোয়ার্টার্স ভেঙে ফেলা হবে। সেই মতোই পূর্ব রেলের হাওড়া শাখার টিকিয়াপাড়ায় রেলের একটি ভগ্নপ্রায় চারতলা কোয়ার্টার্স ভেঙে ফেলার সিদ্ধান্ত হয়েছে।

এলাকায় বিএনআর কোয়ার্টার্স বলে পরিচিত বাড়িটির বাসিন্দাদের সোমবার রেলের পক্ষ থেকে ওই জায়গা ছেড়ে চলে যাওয়ার মৌখিক নির্দেশ দেওয়া হয়। মঙ্গলবার রেল রক্ষী বাহিনীর পক্ষ থেকে পরিদর্শন করতে এলে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন বাসিন্দারা।

টিকিয়াপাড়া আরআরআই কেবিনের কাছে রয়েছে পূর্ব রেলের বহু পুরনো চারটি কোয়ার্টার্স। ওই চারটি বাড়ির ১৬৫টি ঘরে বর্তমানে ১৫০টি পরিবার বাস করে। দীর্ঘ দিন ধরে সংস্কার না হওয়ায় ভবনগুলি জীর্ণ হয়ে পড়েছে। পরিদর্শনের পরে রেল সিদ্ধান্ত নেয়, সেগুলি ভেঙে নতুন ভবন তৈরি করা হবে। বাসিন্দাদের দাবি, সোমবার রেলের আধিকারিকেরা এসে তাঁদের দ্রুত অন্যত্র চলে যেতে বলেন। বাসিন্দাদের দাবি, তাঁরা অনেকেই সেখানে দু’-তিন পুরুষ ধরে রয়েছেন। তাঁদের প্রশ্ন, এর পরে তাঁরা থাকবেন কোথায়? এ ছাড়া কোয়ার্টার্সে ১০ জন মাধ্যমিক ও পাঁচ জন উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষার্থী রয়েছে। এখন বাড়ি ভাঙা শুরু হলে তাদের পরীক্ষা দিতে সমস্যা হবে বলে অভিযোগ বাসিন্দাদের। বাড়ি ছাড়বেন না জানিয়ে এ দিন সকাল থেকেই ওই চারটি কোয়ার্টার্সের বাসিন্দারা বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন।

হাওড়ার ডিভিশনাল রেলওয়ে ম্যানেজার (পূর্ব রেল) ঈশাক খান বলেন, ‘‘যে কোনও সময়ে দুর্ঘটনা ঘটে যেতে পারে এমন জীর্ণ কোয়ার্টার্স এবং বেআইনি দখলদার রয়েছে এমন ভবনগুলি ভেঙে ফেলা হবে।’’

সবাই যা পড়ছেন

Advertisement

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন