• শিবাজী দে সরকার
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

ওজনে নজর, মাঝেরহাট সেতুতে থাকবে সেন্সর

Majerhat Bridge
কর্মকাণ্ড: মাঝেরহাট সেতু তৈরির কাজ চলছে

অতিরিক্ত ওজনের জেরেই ভেঙে পড়েছিল মাঝেরহাট সেতু। সেই বিপর্যয় থেকে শিক্ষা নিয়ে এ বার সেতুর ওজন কোন সময়ে কত থাকছে, তা মাপার ব্যবস্থা থাকছে নির্মীয়মাণ মাঝেরহাট সেতুতে।

প্রশাসন সূত্রের খবর, মাঝেরহাট সেতু তৈরি হচ্ছে বিদ্যাসাগর সেতুর ধাঁচে। দু’প্রান্তে থাকা কয়েকটি কেব্‌লের মাধ্যমে ঝুলন্ত অবস্থায় থাকবে প্রায় ৮০০ মিটার লম্বা সেতুটি। এই ধরনের সেতুকে কেব্‌ল স্টার্টার ব্রিজ বলা হয়। এমন সেতুর মাঝের অংশের ভার থাকে কেব্‌লের উপরে। ওই কেব্‌লের মধ্যেই লাগানো থাকবে সেন্সর। সেতুর ওজন কোন সময়ে কত থাকছে, তা স্বয়ংক্রিয় পদ্ধতিতে লিপিবদ্ধ হতে থাকবে ওই সেন্সরে। কখনও সেতুর ওজন বহন ক্ষমতার বেশি হয়ে গেলে তা জানতে পারবেন সেতুর রক্ষণাবেক্ষণের সঙ্গে যুক্ত আধিকারিকেরা। সেই মতো তাঁরা প্রয়োজনীয় ব্যবস্থাও গ্রহণ করতে পারবেন।

সূত্রের দাবি, মাঝেরহাট সেতু তৈরির কাজ প্রায় শেষ পর্যায়ে। ওই সেতুর নীচ দিয়ে গিয়েছে শিয়ালদহ-বজবজ শাখার রেললাইন এবং মাঝেরহাট চক্ররেল। রেললাইনের উপরে প্রায় ১০০ মিটার অংশে সেতুর নির্মাণ বাকি রয়েছে। কমিশনার অব রেলওয়ে সেফটি-র ছাড়পত্র মেলার পরে ওই অংশে কাজ করার প্রস্তুতি শুরু হয়েছে। রেললাইনের অংশে সেতুর কোনও স্তম্ভ না থাকলেও নির্মাণকাজের জন্য ট্রেন চলাচল নিয়ন্ত্রণ করা প্রয়োজন। ইতিমধ্যেই সেই কাজের জন্য পূর্ত দফতরের তরফে পূর্ব রেলের সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়েছে। 

সেতু নির্মাণের সঙ্গে যুক্ত আধিকারিকেরা জানিয়েছেন, রেললাইনের উপরের ১০০ মিটার অংশকে ১০টি ভাগে ভাগ করে কাজ করা হবে। সেই মতো ১০টি শনি ও রবিবারে ট্রেন চলাচল নিয়ন্ত্রণ করার প্রয়োজন হবে বলে আধিকারিকদের অনুমান। সূত্রের খবর, ট্রেন চলাচল নিয়ন্ত্রণ করার জন্য আবেদন করা হয়েছে। অনুমতি মিললেই কাজ শুরু হবে। জুলাই মাসের শেষ সপ্তাহে সেতুর নির্মাণ শেষ করার লক্ষ্যমাত্রা রয়েছে বলে আধিকারিকেরা জানিয়েছেন।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন