• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

পোস্তা উড়ালপুলের জন্য বিশেষ কমিটি

Posta
পোস্তা উড়ালপুলের অবশিষ্ট অংশ। ফাইল চিত্র

উত্তর কলকাতায় বিবেকানন্দ উড়ালপুলের অবশিষ্ট অংশ থাকবে না কি ভেঙে ফেলা হবে, সেই সিদ্ধান্ত এ বার নিতে চলেছে রাজ্য সরকার। পুর ও নগরোন্নয়ন দফতর সূত্রের খবর, ওই উড়ালপুলের বর্তমান অবস্থা খতিয়ে দেখতে একটি বিশেষজ্ঞ কমিটি নিয়োগ করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। সেই কমিটির রিপোর্ট অনুযায়ী পোস্তা উড়ালপুলের ভবিষ্যৎ স্থির হবে।

ওই উড়ালপুল নির্মাণের দায়িত্বে ছিল কেএমডিএ। ২০১৬ সালের ৩১ মার্চ নির্মাণকাজ চলার সময়ে আচমকাই ভেঙে পড়েছিল ওই উড়ালপুল। ভয়াবহ সেই দুর্ঘটনায় মৃত্যু হয় ৫০ জনের। শতাধিক আহত হন। তার পর থেকে একই অবস্থায় রয়ে গিয়েছে ওই উড়ালপুলের বাকি অংশটুকু।  

বুধবার রাজ্যের পুর ও নগরোন্নয়নমন্ত্রী তথা কলকাতার মেয়র ফিরহাদ হাকিম জানান, বিশেষজ্ঞদের নিয়ে একটি দল তৈরির জন্য প্রস্তুতি শুরু করেছে কেএমডিএ। ওই বিশেষজ্ঞ দল উড়ালপুল খতিয়ে দেখে যা পরামর্শ দেবে সেই মতোই কাজ করা হবে। অর্থাৎ, পোস্তা উড়ালপুলের কিছু অংশ ভেঙে নতুন করে নির্মাণের কাজ করা যাবে বলে যদি ওই কমিটি রিপোর্টে জানায়, তা হলে তা-ই করবে প্রশাসন। আর যদি সেই রিপোর্টে বলা হয়, উড়ালপুলটির বাকি অংশের পুরোটাই ভেঙে দেওয়া প্রয়োজন, তবে সেই কাজ শুরু করা হবে। নির্মাণকাজে নিরাপত্তার বিষয়টিকে গুরুত্ব দিতেই ওই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন ফিরহাদ। 

২০০৯ সালে বামফ্রন্ট জমানায় ২.২ কিলোমিটার দীর্ঘ উড়ালপুলের কাজ শুরু হয়েছিল। শেষ হওয়ার কথা ছিল ২০১০-এ। কিন্তু নানা কারণে বারবার কাজ শেষ হওয়ার দিন পিছোতে থাকে। তৃণমূল সরকার ক্ষমতায় আসার পরে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ২০১৬ সালে ওই উড়ালপুলের নির্মাণকাজ শেষ করার নির্দেশ দিয়েছিলেন। তার মধ্যেই ঘটে যায় ওই দুর্ঘটনা। এ দিন মেয়র জানিয়েছেন, ওই এলাকায় যানজটের কথা ভেবে সেখানে উড়ালপুল করতে চাইছে রাজ্য সরকার। তাই সব দিক বিবেচনা করেই এগোবে রাজ্য।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন