• মধুমিতা দত্ত
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

প্রতিবাদের মুখ আয়েশা ও দেবস্মিতা কাল এক মঞ্চে

Students
দুই কন্যা: জামিয়া মিলিয়া ইসলামিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে হামলার সময়ে আয়েশার এই ছবিই ভাইরাল হয়েছিল সোশ্যাল মিডিয়ায় (বাঁ দিকে)। যাদবপুরের সমাবর্তনের মঞ্চে সিএএ-র কাগজ ছিঁড়ে ফেলছেন দেবস্মিতা (ডান দিকে)।

Advertisement

লাঠিচার্জ আটকাতে পুলিশের চোখে চোখ রেখে আঙুল উঁচিয়ে থাকা তরুণীটির ছবি ভাইরাল হয়ে গিয়েছিল কিছু দিন আগে। সেই তরুণী, আয়েশা রেনা কলকাতায় আসছেন। সিএএ বা সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন এবং এনআরসি বা জাতীয় নাগরিক পঞ্জির বিরুদ্ধে কাল, শুক্রবার এক প্রতিবাদমঞ্চে দেখা যাবে জামিয়া মিলিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাসের এই ছাত্রীকে। তাঁর সঙ্গেই ওই মঞ্চে থাকবেন যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের এ বারের সমাবর্তনে সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের প্রতিলিপি ছিঁড়ে ফেলে প্রতিবাদ জানানো কৃতী ছাত্রী দেবস্মিতা চৌধুরী।

সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানাতে গিয়ে ১৫ ডিসেম্বর পুলিশের লাঠির মুখে পড়েছিলেন আয়েশা এবং তাঁর বন্ধুরা। অভিযোগ, কোনও মহিলা পুলিশকর্মী সেখানে ছিলেন না। শাহিন নামে আয়েশাদের এক বন্ধুকে পুলিশ টেনে এনে মাটিতে ফেলে মারতে শুরু করলে তাঁকে বাঁচাতে ছুটে যান আয়েশারা। রুখে দাঁড়ান পুলিশের বিরুদ্ধে। খয়েরি ওড়নায় মাথা ঢাকা, চশমা পরা কেরলের মলপ্পুরম জেলার মেয়ে আয়েশার ছবি ভাইরাল হয়ে যায় সোশ্যাল মিডিয়া বা সামাজিক মাধ্যমে। প্রতিবাদের অন্যতম মুখ হয়ে ওঠেন তিনি। কেন্দ্রীয় সরকারের সমর্থকদের সমালোচনারও কেন্দ্রবিন্দু হয়ে ওঠেন তিনি। আয়েশা জানিয়ে দিয়েছিলেন, লড়াই করতে তাঁরা ভয় পান না। সেই লড়াকু আয়েশাই আসছেন কলকাতার প্রতিবাদমঞ্চে।

যাদবপুরের আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের স্নাতকোত্তর প্রথম বিভাগে প্রথম স্থানাধিকারিণী দেবস্মিতা ২৪ ডিসেম্বর বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাবর্তন-মঞ্চে দাঁড়িয়ে সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের প্রতিলিপি ছিঁড়ে প্রতিবাদ জানিয়েছিলেন। বলেছিলেন, ‘‘হম কাগজ নেহি দিখায়েঙ্গে। ইনকিলাব জিন্দাবাদ।’’ তার পরে স্বর্ণপদক নিয়ে মঞ্চ থেকে নেমে গিয়েছিলেন। বিষয়টি নিয়ে বিতর্ক শুরু হয়েছিল। এ ক্ষেত্রেও কেন্দ্রীয় সরকারের সমর্থকেরা নেমে পড়েছিলেন দেবস্মিতার সমালোচনায়। কিন্তু বহু মানুষ যাদবপুরের ওই ছাত্রীর প্রতিবাদকে সমর্থন জানান। সেই দেবস্মিতাও শুক্রবারের প্রতিবাদসভায় উপস্থিত থাকবেন। বুধবার তিনি বলেন, ‘‘নাগরিক হিসেবে আমি আমার বক্তব্য জানাব। সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন নিয়ে এবং জাতীয় নাগরিক পঞ্জি নিয়ে আলাচনার প্রয়োজন আছে। সেই আলোচনার পরিসর তৈরি হচ্ছে, এটা খুবই আশাব্যঞ্জক।’’

শুক্রবার জাকারিয়া স্ট্রিটে সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন এবং এনআরসি-র বিরুদ্ধে ওই প্রতিবাদসভার আয়োজন করেছে একটি স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা। সভার অন্যতম উদ্যোক্তা রাজা আনসারি জামিয়া মিলিয়ার মাস কমিউনিকেশন বিভাগের প্রাক্তন ছাত্র। এ দিন তিনি বলেন, ‘‘সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন এবং এনআরসি নিয়ে সকলের মধ্যে সচেতনতা তৈরি করা দরকার। সেই জন্যই এই আন্দোলনে যাঁরা দেশ জুড়ে প্রতিবাদের মুখ হয়ে উঠেছেন, তাঁদের এই সভায় বক্তব্য পেশ করতে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে।’’ আয়েশার সঙ্গে জামিয়া থেকে আসেছেন অনুজ্ঞা ঝা, দাউদ আরিফ। আইনের ছাত্রী অনুজ্ঞা এবং মাস কমিউনিকেশন বিভাগের পড়ুয়া দাউদ জামিয়ায় পুলিশ চড়াও হওয়ার বিরুদ্ধে সরব হয়েছিলেন। ওয়ালি রহমানিও এই সভায় যোগ দিতে আসছেন।

সবাই যা পড়ছেন

Advertisement

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন