তীব্র গরমে টানা ছ’দিন অবস্থান-বিক্ষোভ চালানোর পরে অবশেষে শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের হস্তক্ষেপে অবস্থান তুললেন শিশু শিক্ষা কেন্দ্র (এসএসকে) এবং মাধ্যমিক শিক্ষা কেন্দ্রের (এমএসকে) শিক্ষকেরা।

সল্টলেকে বিকাশ ভবনের কাছে গত বুধবার শুরু হয়েছিল তাঁদের অবস্থান। শিক্ষকদের অভিযোগ ছিল, বর্তমান তৃণমূল সরকার ক্ষমতায় আসার পরে অর্থাৎ গত আট বছরে তাঁদের এক টাকাও বেতন বাড়েনি। অবিলম্বে বেতন বৃদ্ধির দাবি তোলেন তাঁরা। ধর্নামঞ্চের কয়েক জন শিক্ষক সোমবার ব্যারিকেড ভেঙে বিকাশ ভবনে ঢোকার চেষ্টা করলে পুলিশের সঙ্গে তাঁদের ধস্তাধস্তি হয়। শেষ পর্যন্ত মঙ্গলবার সন্ধ্যায় ধর্না-মঞ্চে আসেন শিক্ষামন্ত্রী।

পার্থবাবু বলেন, ‘‘আমাকে ১৫ দিন সময় দিন। বিষয়টা খতিয়ে দেখছি। আপনাদের প্রতিটি দাবি লিপিবদ্ধ করেছি। পার্শ্বশিক্ষক বা অন্য শিক্ষক-শিক্ষিকারা যে ভাবে বেতন ও প্রভিডেন্ট ফান্ড পাচ্ছেন, সে ভাবে যাতে এসএসকে ও এমএসকে শিক্ষকেরা বেতন পান, তা দেখব। তাঁদের শিক্ষা দফতরে আনারও চেষ্টা করা হবে।’’ মন্ত্রীর এই আশ্বাসের পরেই অবস্থান ওঠে।

শিক্ষক ঐক্য মুক্ত মঞ্চের সভাপতি সুজিত দাস বলেন, ‘‘শিক্ষামন্ত্রীর কথায় আমরা ধর্না প্রত্যাহার করলাম। কিন্তু ১৫ দিনের মধ্যে প্রতিশ্রুতি পূরণ না হলে বৃহত্তর আন্দোলনে নামব।’’